1. [email protected] : abulkasem745 :
  2. [email protected] : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. [email protected] : Arafathussain736 :
  4. [email protected] : didarkulaura :
  5. [email protected] : Press loskor : Press loskor
  6. [email protected] : HolyBd24.com :
  7. [email protected] : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. [email protected] : syed sumon : syed sumon
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু ফেসবুকে লকডাউন বিরোধী পোস্ট করায় যুবক গ্রেফতার কয়েক মাসেই নিয়ন্ত্রণে আসবে করোনা: ডব্লিউএইচও কাদের মির্জার ঘনিষ্ঠ সহচরসহ আটক ৩ সবাই জানে হেফাজতের তাণ্ডবে বিএনপি জড়িত : কাদের করোনায় প্রাণ গেল খুলনা জিলা স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষিকার লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি ভারি বর্ষণে সৌদিতে বন্যা, তুষারপাত হাইল ও আসিরে কয়েক মাসের মধ্যেই নিয়ন্ত্রণে আসবে করোনা দাবি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধানের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরো ৭ হেফাজতকর্মী গ্রেপ্তার ১৮০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৫০ বোতল ফেন্সিডিল এবং ১৫০ গ্রাম গাঁজাসহ ০৫ (পাঁচ) জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার করা হয়।

অশিক্ষিত আর হলুদ সাংবাদিকের দৌরাত্ম্যে প্রকৃত সাংবাদিকরা বিভ্রান্ত

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ৩৭ বার ভিউ

হলিবিডি প্রতিনিধিঃ (ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য দিন দিন বাড়ছে। তারা বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল ও পত্রিকার জাল পরিচয়পত্র ব্যবহার করে ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষকে হুমকি দিয়ে চাঁদা আদায় করে। এতে বিপাকে পড়ছেন পেশাদার সাংবাদিকরা। অশিক্ষিত অযোগ্য কথিত সাংবাদিকরা জাতীয় পত্রিকাকে স্থানীয় পত্রিকা বলে অশ্লীল বাক্য ব্যবহার করে হুংকার ছাড়ে আমার বিরুদ্ধে লিখে দেন,আমি যে খারাপ তা সবাই জানে। হাটে হাড়ি ভাঙ্গলে আমার কিছু হবে না, কারণ আমি নির্লজ্জ-বেহায়া- ভাবটা এমনি অহংকারে মাটিতে পা পড়ে না, অল্প বিদ্যা ভয়ংকর।)

একজন খ্যাতিমান সাংবাদিকের বক্তব্যের একটি লাইন আমার হৃদস্পন্দনে বার বার প্রতিবিম্বিত হচ্ছে এখনও। লাইনটি হচ্ছে ‘হাটে হাড়ি ভেঙ্গে দিলাম, জানিনা বাড়ী ফিরতে পারবো কি না। আমিও এই লেখাটির মাধ্যমে অতি গুরুত্বপূর্ণ ভিন্ন একটি বিষয়ে আজ হাটে হাড়ি ভেঙে দিলাম এটা জেনেও যে, এর মাধ্যমে অনেক তথাকথিত সাংবাদিকদের বিরাগভাজন হতে হবে হয়তো আজীবনের জন্য। তাছাড়া সম্পাদকদের সিংহভাগই লেখাটি তাদের পত্র পত্রিকায় ছাঁপানো দূরের কথা, পরে রাগ গোস্বা অভিমান করতে পারেন আমি অধমের উপর।

তবুও বিবেকের তাড়নায় কলম না ধরে উপায় ছিলোনা। কয়েক দশক যাবত সাংবাদিকতা এবং লেখালেখির জগতে বিচরণ করে যে তিক্ত অভিজ্ঞতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি তার মধ্যে কোনটা রেখে কোনটা লেখি তা নিয়েও ভাবতে হচ্ছে আমাকে। আজ সাংবাদিকদের মধ্যে বিভেদ পেশাদার সাংবাদিক আর অপেশাদার সাংবাদিকের মধ্যে দ্বন্দ্ব বাড়ছে। একদল সত্যের পক্ষে। আরেক দল যা খুশি করার পক্ষে। একদল চাচ্ছেন পেশার মর্যাদা রক্ষা করতে, অন্যদলের চিন্তাভাবনার সময় নেই।

দিন দিন বিভক্তি বাড়ছে। লেজুড়বৃত্তি করতে না পারলে অনেকের ‘ঘুম’ হয় না। সাংবাদিকদের প্রকারভেদ ঘটছে। গ্রুপিং হচ্ছে শাখা প্রশাখার মতো। অনেকে আবার সাংঘাতিক, কখনো হলুদ সাংবাদিক, আন্ডারগ্রাউন্ড সাংবাদিক, চাঁদাবাজ সাংবাদিক, সন্ত্রাসী সাংবাদিক, এমএলএম সাংবাদিক আবার কখনো এমনি এমনি সাংবাদিক, কখনো শখের সাংবাদিক, কাঁচিওয়ালা সাংবাদিক, সিন্ডিকেট সাংবাদিক, কপি সাংবাদিক, বিজ্ঞাপন সাংবাদিক, রাজনৈতিক সাংবাদিক, গলাবাজ সাংবাদিক, ভাড়াটে সাংবাদিক, দালাল সাংবাদিক, ঠিকাদার সাংবাদিক, নামধারী কার্ড ধারী সাংবাদিক, ফেসবুক সাংবাদিক প্রভৃতি বলা হয় তাদের।

বিভিন্ন বিশেষনে ভূষিত করা হলেও তারা সাংবাদিক এটাই বড় কথা। এ নিয়ে কারো খারাপ লাগা বা মনে সামান্য দুঃখবোধও জাগে না। যদিও মানুষ মাপার মেশিন নাই, তথাপিও প্রতিনিধি নিয়োগ দেবার সময় শিক্ষাগত যোগ্যতা পাঠশালা পাশ কি না, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বারান্দায় কোন দিন গিয়েছে কি না, শুদ্ধভাবে একটি সংবাদ লেখা দুরের কথা তিন দিনের ছুটি চেয়ে প্রধান শিক্ষকের নিকট একটি ছুটির দরখাস্ত লিখতে পারবে কি না তা বাছবিচার না করেই প্রতিনিধি নিয়োগ প্রদান করেন অধিকাংশ তথাকথিত সম্পাদক বা তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা। কোথাও কোথাও দেখা যায় ইতিপুর্বে বিভিন্ন ধরনের যেমন রিকসা ভ্যান, ঠেলা, ভটভটি, করিমন, নছিমন, ইমা, লেগুনা, বাস, ট্রাক বা রাইসমিলের ড্রাইভার, হেল্পার, রাজ ও কাট রং মি¯ুÍরি, যোগালি, ধুপা, নাপিত, মুছি, দালাল, টাউট, চোরাকারবারী, পতিতা, হকার, আদম ব্যাপারী, হুন্ডি ব্যবসায়ী ইত্যাদি পেশায় নিয়োজিত ছিল বা আছে কিন্তু পরবর্তীতে সময় সুযোগমতো এরাও সাংবাদিকের খাতায় নাম লেখাতে তেমন একটা বেগ পেতে হয়নি।

আমাদের সাবেক প্রয়াত এক মন্ত্রী আক্ষেপ করে বলেছিলেন, সম্মানজনক সকল পেশায় লোক নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রথমেই শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি যাচাই বাছাই করা হলেও আমাদের দেশে ঐ একটি পেশায় শিক্ষাগত যোগ্যতার কোন দরকার পড়েনা। সেই মহান পেশাটি হচ্ছে সাংবাদিকতা! ব্যক্তিস্বার্থ, গোষ্ঠিস্বার্থ চরিতার্থ করার হাতিয়ার হিসেবে ব্যাবহার হচ্ছে।

ঐসব সাংবাদিক এখন হলুদ সাংবাদিক’নামে পরিচিত। আমাদের দেশে জাতীয় স্থানীয় দৈনিক সাপ্তাহিক পাক্ষিক মাসিক ত্রৈমাসিক অনেকগুলি পত্র-পত্রিকা সুনামের সাথে হচ্ছে প্রকাশিত। সাংবাদিকতা একটা ঝুঁকিপূর্ণ কিন্তু সম্মানের পেশা। হামলা মামলা হতে পারে যেকোন সময়। হচ্ছেও তাই। সৎ সাংবাদিকদের উপরই মূলত হামলা মামলা হয় বেশি। বর্তমান সময়ে সৎ সাংবাদিক খুঁজে পাওয়া কঠিন। তবে এই কঠিন মুহূর্তেও নবীন প্রবীণ অনেক সৎ সাংবাদিক ভাইয়েরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিঃস্বার্থভাবে শক্ত হাতে কলম চালিয়ে যাচ্ছেন দুর্নীতিবাজ ধান্দাবাজ চাটুকার ও লুটেরা ও হায় হায় কোম্পানীর বিরুদ্ধে।

বিনিময়ে পাচ্ছেন বিবেকবানদের দোয়া ও ভালোবাসা। মরণের পরও মানুষ যুগ যুগ ধরে তাদের স্মরণ করবে তাদের কর্মের জন্য। বেড়ায় যদি ধান খায় তাহলেতো এই বেড়া আরও বিপজ্জনক। সর্ষের মধ্যে যদি ভুতের অবাধ বিচরণ থাকে তাহলে ভুত তাড়াবেন কি দিয়ে? কথিত ভুয়া সাংবাদিকে ভরে গেছে রাজধানী বা এর আশে পাশে” রাজধানীর উপকুলে অথবা রাজধানীর ভিতরে সাংবাদিকের অভাব নেই। একজন সাংবাদিকের কাছে দেখা যায় প্রায় ডজন খানেক পত্রিকার পরিচয়পত্র আইডি কার্ড।

দামি বেশভূষা, হাতে ক্যামেরা, বাহন হিসেবে মোটর সাইকেল বা প্রাইভেট কার, কোমরে/গলায় কিংবা পকেটে ঝোলানো যেন তেন পত্রিকা বা অনলাইন নিউজ পোর্টালের পরিচয় পত্র কিংবা টাকা দিয়ে কেনা কোন নামিদামী ইলেকট্রিক মিডিয়ার আইডি কার্ডধারী অশিক্ষিত নামদারী সাংবাদিক দেখে বোঝার উপায় নেই এরা প্রতারক বা চাঁদাবাজ। এরা সরাসরি প্রবেশ করছে সরকারি দপ্তরে। প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সামনে চেয়ার নিয়ে বসে পড়ছে। থানায় যাচ্ছে, দালালি করছে। আর প্রশাসনও সাংবাদিক ভেবে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন। ব্যবসায়ী মহলকে বিপাকে ফেলে হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা।

এদের হাতে প্রতিনিয়ত অপমান ও লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছে নানা শ্রেণি পেশার মানুষ। শিক্ষক, ব্যবসায়ী, চাকুরীজীবী কেউ বাদ পড়ছে না এ প্রতারক চক্রের চাঁদাবাজির হাত থেকে। সম্প্রতি সময়ে এদের অপকর্ম মহামারী আকারে ধারণ করেছে। আর সবচেয়ে আতঙ্কের বিষয় দাগী সন্ত্রাসী, চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী, তালিকা

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com