1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু আলহাজ্ব সৈয়দ আতাউর রহমানের ইন্তেকাল, দেশের ইসলামী আন্দোলনের এক নীরব স্বাক্ষীর বিদায় জাল টাকার কারবার বন্ধে বিশেষ আইনে মামলা করবে পুলিশ সরকার নারী গাড়ি চালক তৈরিতে সুযোগ বাড়াচ্ছে’ বখাটেকে কুপিয়ে সম্ভ্রম রক্ষা পেল গৃহবধূর হিলফুল ফুজুল ইসলামি যুব সংঘ (ম.দ)’ কর্তৃক সন্ধাকালিন ১৩ জন ছাত্রদেরকে কুরআন প্রদান মরহুম কালাম আজাদ ও কফিল এর স্মরণে দোয়া মাহফিল ঘিলাছড়া জামেয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসায় সিনহা হত্যা মামলার ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে : র‌্যাব ডিজি তিন’শ ৪২ শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেছে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ আইজিপি’র সাথে ইউএন রেসিডেন্ট কো-অর্ডিনেটরের সাক্ষাত পাহাড়ধ্বসের শংকা বিবেচনায় পাহাড়ের পাদদেশ থেকে শতাধিক পরিবারকে অপসারণ করেছে জেলা প্রশাসন

খুলনা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মী নিয়োগে টেন্ডারে সিন্ডিকেটের হানা

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৭ বার ভিউ

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতরের আওতায় ৩টি প্রতষ্ঠানে ৪৬ জন আউট সোর্সিং কর্মী নিয়োগের টেন্ডারে সিন্ডিকেট তৈরীর অভিযোগ উঠেছে। এর ফলে সিডিউল বিক্রি থেকে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ৮টি সিডিউল বিক্রি হলেও সিÐিকেটের কারসাজির কারণে ৩টি প্রতিষ্ঠানের ৩টি সিডিউল জমা পড়েছে। যার মধ্যে ২টি প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত্বাধকারী একজন।
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ দফতরের আওতাধীন ৩টি প্রতষ্ঠান খুলনা মেডিকেল সাব ডিপো, খুলনা বক্ষব্যাধী হাসপাতাল ও চালনার পোর্ট হেলথ অফিসের জন্য ২ বছরের মেয়াদে আউটসোর্সিং পদ্ধতিতে ৪৬ জনবল নিয়োগের দরপত্র আহবান করা হয় গত ১৩ আগষ্ট। এরপর ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ দফতর থেকে ৮টি সিডিউল বিক্রি হয়। ৮ সেপ্টেম্বর ছিল দরপত্র জমা ও বাক্স খোলার নির্ধারিত দিন। নির্ধারিত সময় শেষে দরপত্র বাক্স খুলে মাত্র ৩টি সডিউল পাওয়া যায়। এর মধ্যে খুলনার একই ব্যক্তির মালিকানায় থাকা ২টি প্রতিষ্ঠান থেকে ২টি ও ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠান থেকে একটি সিডিউল জমা পড়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে : মোঃ ফারুক হোসেন হেমায়েতের মালিকানাধিন কন্ট্রোক্ট ক্লিনিং সার্ভিস ও মাছরাঙা সিকিউরিটি এবং মোঃ আব্দুল্লাহ আল হিল এর মালিকানাধীন গ্যানেস সিকিউরিটি সার্ভস লিমিটিড, ঢাকা।
অভিযোগে জানা গেছে, নির্ধারিত সময়ে গাইবান্ধা, ঢাকা ও খুলনার আরও ৫টি প্রতিষ্ঠান থেকে সিডিউল ক্রয় করা হয়েছিল। কিন্তু সিÐিকেটের অব্যহত চাপের কারণে সে সব প্রতিষ্ঠান সিডিউল জমা দিতে পারেননি। আর যে প্রতিষ্ঠানগুলো সিডিউল জমা দিয়েছেন তারা নিজেরাই সিÐিকেট তৈরী করেছেন। এ কারণে তারা আগেই নির্ধারণ করে নিয়েছেন আউটসোর্সিং কর্মী নিয়োগের এ কাজটি কোন প্রতিষ্ঠান করবে। সেভাবেই সিÐিকেট চক্র তৎপরতা চালিয়েছেন।
ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নাম না প্রকাশের শর্তে অভিযোগ করা হয়েছে, সিডিউল কেনার পর থেকে খুলনার একজন প্রভাবশালী নেতা তাদেরকে ফোন করে সিডিউল জমা না দেয়ার জন্য শাষিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সিডিউল জমা দিতে হলে তার নির্দেশনা মেনে সিডিউল জমা দিতে হবে। কিন্তু এ কাজটি পাওয়ার আশা করা যাবে না। কাজটি কোন প্রতিষ্ঠান পাবে সেটা আমরা ঠিক করে ফেলেছি। তাই সিডিউল ফেলে এখানে ঝামেলা না করলেই ভাল। তিনি বলেন, এভাবে শাষানো হলে আর ঢাকা থেকে খুলনায় অর্থ ব্যয় করে গিয়ে সিডিউল ফেলা সম্ভব না।
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ রাশেদা সুলতানা বলেন, আমরা দরপত্র আহবান করে নিয়ম মেনেই সব কার্যক্রম পরিচালনা করছি। ৪৬ জন কর্মী নিয়োগে ৮টি সিডউল বিক্রি হওয়ায় কিছুটা হতাশ। আরও সিডিউল বিক্রি হতে পারত। কিন্তু ওই ৮টি সিডিউলও জমা হয়নি। নির্ধারিত সময় শেষে বাক্স খুলে ৩টি সিডিউল পাওয়া গেছে। তবে, কোন সিÐিকেড তৈরীর বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। সিÐিকেট গঠন বা আউটসোর্সিং কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে সব ধরনের অনিময় প্রতিরোধে সতর্ক ও কঠোর অবস্থানেই আছি আমরা। তিনি বলেন, তার দফতরের আওতায় থাকা ৩টি প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪টি ক্যাটাগরিতে ৪৬ জন আউটসোর্সিং কর্মী নিয়োগের লক্ষ্য রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে মালী ৭ জন, নিরাপত্তা প্রহরী ১২ জন, বাবুর্চি ৩ জন ও পরিচ্ছন্নতা কর্মী ২৪ জন। যাদের শিক্ষাগত যোগত্য ৮ম শ্রেনি পাশ ও বয়স ১৮ বছর থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে। তিনি বলেন, যারা ইতোমধ্যেই আউটসোর্সিং কর্মী হিসেবে কাজ করছেন তারা অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। চেষ্টা থাকবে তাদেরকেই কাজে রেখে দেয়া। যা ঠিকাদার বাছাই হওয়ার পরই আলোচনার মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে। এ ক্ষেত্রে কোন নিয়োগের ক্ষেত্রেই কোন প্রকার আর্থিক লেনদেন সহ্য করা হবে না।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com