1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু আলোচিত ১০ স্কুল প্রকল্পে ৩শ কোটি টাকা লোপাটের প্রমাণ পায়নি সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল, দেশের প্রখ্যাত আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই আলহাজ্ব সৈয়দ আতাউর রহমানের ইন্তেকাল, দেশের ইসলামী আন্দোলনের এক নীরব স্বাক্ষীর বিদায় জাল টাকার কারবার বন্ধে বিশেষ আইনে মামলা করবে পুলিশ সরকার নারী গাড়ি চালক তৈরিতে সুযোগ বাড়াচ্ছে’ বখাটেকে কুপিয়ে সম্ভ্রম রক্ষা পেল গৃহবধূর হিলফুল ফুজুল ইসলামি যুব সংঘ (ম.দ)’ কর্তৃক সন্ধাকালিন ১৩ জন ছাত্রদেরকে কুরআন প্রদান মরহুম কালাম আজাদ ও কফিল এর স্মরণে দোয়া মাহফিল ঘিলাছড়া জামেয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসায় সিনহা হত্যা মামলার ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে : র‌্যাব ডিজি তিন’শ ৪২ শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করেছে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ

খুলনায় ঠিকাদারের গুলি বর্ষণের রহস্যের জট খুলছে

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০
  • ১০ বার ভিউ

মোঃ জোবায়ের ইসলাম অলি বিশেষ প্রতিনিধিঃ
অবশেষে খুলনা মহানগরীর মিস্ত্রীপাড়ায় ঠিকাদার শেখ ইউসুফ আলীর গুলি বর্ষণের রহস্যের জট খুলতে শুরু করেছে।

শুক্রবার (২৮ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঠিকাদার শেখ ইউসুফ আলীর বাড়ি গিয়েছিল তার মেয়ের প্রেমিক ও প্রেমিকের বন্ধুরা।

তাদের পরিচয় পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে হুমকি দেন ঠিকাদার। পরিস্থিতি খারাপ বুঝে বাড়ির লোকেরা তাদের বের হয়ে যেতে বলে। তারা বের হতে না হতেই পিস্তল হাতে বেরিয়ে পড়েন ঠিকাদার। ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

গুলির শব্দ শুনে পাশের বাড়ির স্কুল পড়ুয়া লামিয়া কৌতুহলবশত ঠিকাদারের বাড়ির সামনে যায়। এমনি সময় লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে একটি গুলি বিদ্ধ হয় শিশু লামিয়ার বাম পায়ে।

এমনি ঘটনা ঘটেছিল শুক্রবার মিস্ত্রীপাড়ার ঠিকাদার ইউসুফ আলী সরদারের বাড়িতে। তবে এ ঘটনা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে ঘটনাটি ভিন্ন খাতে নিতে ঠিকাদার মেয়ের প্রেমিক ও প্রেমিকের বন্ধুদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে মামলা করেছেন।

ঠিকাদার মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, মিস্ত্রিপাড়া আরাফাত জামে মসজিদের পাশের ঠিকাদার ইউসুফ আলী বাবু খান রোডের সংস্কারের কাজ পেয়েছেন। কিছু দুষ্কৃতকারী এ কাজটির জন্য তাকে চাপ দিচ্ছিলো। দুষ্কৃতকারীরা কাজটা কিনতে চায়। তারা চাঁদা নিতে গেলে তিনি গুলি ছোড়ে।

অভিযুক্ত ঠিকাদার ইউসুফ আলী জানান, ঠিকাদারি একটি কাজ নিয়ে চার যুবক তার কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করার এক পর্যায়ে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিলে তিনি পিস্তল নিয়ে তাদের ধাওয়া করেন। এ সময় পিস্তলে তিন রাউন্ড গুলি ছিল। তিনি দুই রাউন্ড গুলি ছোড়েন। ওই চার যুবকও দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় গুলি করেছিলো। তাদের গুলি লামিয়ার পায়ে বিদ্ধ হয়েছে।

তবে ঠিকাদারের দায়ের করা মামলা ও দাবি করা সব তথ্য মিথ্যা বলে অভিযোগ করেছেন ওই চার যুবকের স্বজনরা।

তারা জানিয়েছেন, ঠিকাদার ইউসুফ আলীর মেয়ে রুকাইয়া বানরগাতির সোহরাওয়ার্দী কলেজে পড়েন। রুকাইয়ার সঙ্গে শাহিদ নামে একটি ছেলে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ঠিকাদার তার পছন্দের ছেলের সঙ্গে মেয়ের বিয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। মেয়ের মোবাইল ফোনও কেড়ে নিয়েছিলেন তিনি। কয়েকদিন মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে প্রেমিক শাহেদ তার তিন বন্ধু মেহেদি, ইসমাইল ও সাইফুলকে নিয়ে যান ইউসুফ আলীর বাড়িতে। প্রেমিকা রুকাইয়ার বাবা ঠিকাদার ইউসুফকে তারা র্দীঘদিনের প্রেমের সম্পর্কের কথা খুলে বলেন। এমন সময় ইউসুফ ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে তাদের গালিগালাজ শুরু করেন। তখন সেখানে উপস্থিত রুকাইয়ার মামা তাদের বের হয়ে যেতে পরামর্শ দেন। তারা বের হয়ে দরজা পর্যন্ত আসার পরে ইউসুফ পিস্তল নিয়ে বের হয়ে গুলি ছোড়েন।

সাইফুলের মামা সোহেল বলেন, আমার ভাগিনা ও তার বন্ধুদের ওপর সম্পূর্ণ বে-আইনি ভাবে গুলি ছুড়েছেন ঠিকাদার ইউসুফ। আবার তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলাও দায়ের করেছেন। আমরা আইনি পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এদিকে ঠিকাদার ইউসুফ আলীর বাড়ির সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ওই চার যুবক প্রথমে দরজা দিয়ে স্বাভাবিক ভাবে বের হচ্ছিলেন। তখন পিস্তল নিয়ে ছুটে আসেন ঠিকাদার ইউসুফ। ঠিকাদারকে মেয়ের মামা গুলি না করা জন্য বাধা দেন। তাকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিয়ে ইউসুফ গুলি ছোড়েন এবং সিঁড়ি দিয়ে তাদের পিছু পিছু তাড়া করতে থাকেন।

ঠিকাদারের লক্ষ্যভ্রষ্ট গুলিতে আহত লামিয়া খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। রোববার রাত ৮টা পর্যন্ত তাকে অস্ত্রোপাচার করা হয়নি।

লামিয়ার প্রতিবেশি মামা তরিকুল ইসলাম জানান, লামিয়া ব্যথার যন্ত্রণায় ছটফট করছে। এখনও তার পায়ের গুলি বের করা হয়নি। আমরা খুবই চিন্তায় রয়েছি।

চিকিৎসকরা বলছেন, লামিয়ার থ্রি-ডি সিটি স্ক্যান এবং হাই আল্ট্রাসনোগ্রাম পরীক্ষা করা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত হবে খুলনায় অপারেশন হবে কি- না? গুলির অবস্থান নির্ণয় করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত।

খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম বলেন, ‘ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করে চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা ঘটনাটি আরও তদন্ত করবো। তাহলে আসল ঘটনা জানা যাবে’।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com