1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু দৃষ্টিনন্দন পায়রা সেতুতে হাঁটতে পারলে ভালো লাগতো: প্রধানমন্ত্রী বিএফইউজে নির্বাচনে সভাপতি ওমর ফারুক, দীপ আজাদ মহাসচিব কুমিল্লায় সহিংসতার বিচার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে : আইনমন্ত্রী সিলেটবাসীর পক্ষ থেকে ‘প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের উপহার’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন জাতীয় প্রেসক্লাব আগামী দিনগুলোতে বহুমাত্রিক সমাজ নির্মাণে ভূমিকা রাখবে -তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী মেহেরপুরের শহীদ রোভার দিবস আজ প্রিয় বাংলা পাণ্ডুলিপি পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা; গল্পে বিজয়ী মেহেরপুরের লেখক বরকত আলী গুণীজনদের সন্মান দিলে সমাজে গুনীজন সৃষ্টি হবে; বললেন ফেঞ্চুগঞ্জে আবহ’র সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে কলেজ গেটে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে শিক্ষারর্থী নিহত পিআইবির প্রশিক্ষণ কর্মশালা বর্জন করলেন সুনামগঞ্জের মূলধারার সাংবাদিকরা

বিচলিত ভারত: কাশ্মীরের মধ্য দিয়ে ৬.৮ বিলিয়ন ডলারের রেল প্রকল্প এগিয়ে নিচ্ছে চীন, পাকিস্তান

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ৬২ বার ভিউ

মৈত্রী হাইওয়ে, পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদকে চীনের জিনঝিয়াং প্রদেশের রাজধানী কাশগড়কে যুক্ত করেছে এই সড়ক

কাশ্মীর অঞ্চলে অবকাঠামো নির্মাণে সহযোগিতা জোরদার করেছে চীন ও পাকিস্তান। এখানে দুই দেশেরই আলাদাভাবে ভারতের সঙ্গে ভূখণ্ডগত বিরোধ রয়েছে।

গত বুধবার ইসলাবাদ চায়না-পাকিস্তান ইকনমিক করিডোরের (সিপিইসি) অংশ হিসেবে কাশ্মীর অঞ্চলের মধ্য দিয়ে ৬.৮ বিলিয়ন ডলারের একটি রেললাইন আপগ্রেড পরিকল্পনা অনুমোদন করে।

অন্যদিকে গত সপ্তাহেই থাকোট থেকে হাভেলিয়ান পর্যন্ত ১১৮ কিলোমিটার দীর্ঘ একটি সড়ক উদ্বোধনের কথা ঘোষণা করেছে বেইজিং। এই সড়ক হলো ইসলামাবাদ থেকে চীনের জিনঝিয়াং অঞ্চলের রাজধানী কাশগড় পর্যন্ত নির্মাণাধীন বৃহৎ সড়ক প্রকল্পের অংশ।

ভারতের ইউনিয়ন টেরিটরি জম্মু-কাশ্মীরের পশ্চিমাঞ্চলে বিরোধপূর্ণ ভূখণ্ডের মধ্য দিয়ে এই সড়ক গিয়েছে। সড়কটির নির্মাণ শেষ হলে তা ভারতের দাবি করা ভূখণ্ড লাদাখের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করবে।

এই সড়ক উদ্বোধন পাকিস্তান ও চীনের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের পরিচায়ক। কাশ্মীর অঞ্চলের বিশেষ সাংবিধানিক মার্যাদা বাতিলর পর এই ঘনিষ্ঠতা আরো দৃশ্যমান হয়েছে।

সাংহাই ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের দক্ষিণ এশিয়া বিশেষজ্ঞ ওয়াং দেহুয়া বলেন, চীন-পাকিস্তান পরিবহন প্রকল্পগুলো নিয়ে ভারত বেশ বিচলিত। এই অঞ্চলে কৌশলগত অবস্থান খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং হাইওয়ে প্রকল্প এটা প্রমাণ করেছে।

ওয়াং বলেন, আগে কাশ্মীর ইস্যু পাকিস্তান-ভারত-চীন ত্রিপক্ষীয় সম্পর্কের মধ্যে ছিলো না। এখন সেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। ভারত বিষয়টিকে জটিল করে ফেলেছে। বিশেষ করে লাদাখ ইউনিয়ন টেরিটরি গঠন করে চীনের জন্য বিষয়টিকে জটিল করে তোলা হয়েছে।

সাংবিধানিক পরিবর্তনের পর গত অক্টোবরে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করে ভারত। এতে কাশ্মীর অঞ্চলকে দুই ভাগ করে দক্ষিণে জম্মু-কাশ্মীর ও উত্তরে লাদাখ নামে দুটি কেন্দ্র শাসিত ভূখণ্ড তৈরি করা হয়। ইসলামাবাদ ও বেইজিং উভয়েই এর নিন্দা করে এবং ওই অঞ্চলের উপর দুই দেশেরই দাবি রয়েছে।

গত সপ্তাহে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার দেশের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র প্রকাশ করেছেন। এতে জম্মু-কাশ্মীরকে ভারতের অবৈধ দখলে থাকা পাকিস্তানের ভূখণ্ড হিসেবে দেখানো হয়েছে। ভারত এই মানচিত্রকে ‘রাজনৈতিক মস্করা’ হিসেবে অভিহিত করেছে।

অন্যদিকে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বুধবার বলেছে একতরফাভাবে কাশ্মীর অঞ্চলের যেকোন পরিবর্তন ‘অবৈধ ও বাতিল’।

গত জুনে ভূখণ্ড নিয়ে ভারতের সঙ্গে চীনের বিরোধ সহিংসতায় রূপ নেয়। লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় দুই দেশের মধ্যে সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষ হলে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হয়। অন্যদিকে জম্মু-কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখায় সংঘর্ষে পাকিস্তান ও ভারতের সেনারা মারা যাচ্ছে।

সিঙ্গাপুরের এস রাজারত্নম স্কুল অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের সিনিয়র ফেলো জামেস ডোরসে বলেন, ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্ত উত্তেজনা পাকিস্তানের মনোবলকেই জোরদার করেছে। তবে চীন সেখানে রণদামামা বাজাবে না। বিষয়টি চীনের জন্য দ্বিধারী তরবারির মতো। পাকিস্তানে বিপুল বিনিয়োগ রয়েছে চীনের। তাই দেশটিকে শান্ত রাখার মধ্যেই তাদের স্বার্থ।

সাংহাই ফুডান বিশ্ববিদ্যালয়েল সাউথ এশিয়া স্টাডিজের প্রফেসর দু ইউকাং বলেন, চীনের অবস্থান হলো ভারত ও পাকিস্তান যেন নিজেরাই নিজেদের বিরোধ মিমাংশা করে সে জন্য তাদের মধ্যে আলোচনা শুরু করানো। পাশাপাশি জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক ফোরামেও সে তার উদ্বেগ প্রকাশ করবে।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com