1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু আইজিপি’র সাথে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সাক্ষাত আমরা যুদ্ধ চাই না, তবে মোকাবেলার শক্তি অর্জন করতে চাই গাজীপুর মহানগর ব্যবসায়ীবৃন্দদের সাথে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাহিরপুরে মাটিয়ান হাওরের বেরী বাঁধ কাটার অভিযোগে ইজারাদারের বিরুদ্ধে মানবন্ধন রিমান্ড শেষে কারাগারে দেলোয়ার ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড স্বামীকে ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ ডুমুরিয়ায় দিন ব্যাপী কর্মশালায় সাবেক মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি ডুমুরিয়ায় বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাড়ির ভিতর প্রবেশ: পিষ্ঠ হয়ে নারী নিহত কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত

দোরগোড়ায় আরেকটি স্নায়ুযুদ্ধ, প্রস্তুতি নিতে হবে পাকিস্তানকে

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৪ বার ভিউ

দোকলাম ও লাদাখ আসলে ভারত ও চীনের মধ্যকার কৌশলগত দৃশ্যপটে নতুন অধ্যায়ের সূচনা। চীন-ভারত ‌‘পুরনো স্বাভাবিক’ প্রকৃতির মৌলিক পরিবর্তন। এশিয়ার প্রতিবেশী দুই জায়ান্টের মধ্যে সক্রিয় প্রতিদ্বন্দ্বির মাধ্যমে এশিয়া এখন নতুন কৌশলগত নতুন যুগে প্রবেশ করল।

নতুন স্নায়ুযুদ্ধের মঞ্চ

আগের স্নায়ুযুদ্ধের মঞ্চ ছিল কোরিয়া, ভিয়েতনাম ও সবশেষে আফগানিস্তান। এসব স্থান থেকে নতুন এই স্নায়ুযুদ্ধের ভিন্নতা হলো এটি হচ্ছে হিমালয়ের বরফজমা উচ্চ এলাকা ও ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরের গভীর সমুদ্রে।

এখনই পুরো দস্তুর লড়াই শুরু হয়ে যাবে, এমন কোনো ইঙ্গিত পাওয়া না গেলেও দুই দেশের মধ্যে সীমিত সঙ্ঘর্ষ কয়েক গুণ বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে। সব হিসাবেই বলা হচ্ছে, এটি আরেকটি স্নায়যুদ্ধ এবং দুর্ভাগ্যজনকভাবে তা আবারো হচ্ছে পাকিস্তানের দ্বারপ্রান্তে। অথচ এখনো দেশটি আগের স্নায়ুযুদ্ধের বিশৃঙ্খলা থেকে মুক্তি পায়নি।

ভারতের ভৌগোলিক বিস্তার ও ভারতীয় কৌশবিদদের মনোস্তাত্ত্বিক ইতিহাস বিবেচনা করে বলা যায়, ভারত ধীরে ধীরে ও নীরবে সঙ্ঘাতমূলক অবস্থান গ্রহণ করবে। এশিয়ার দুই প্রতিবেশীর সঙ্ঘাত হিমালয়ে বিস্তৃত হবে।

ধারণা করা হচ্ছে যে লাদাখের সঙ্ঘাত বিভিন্ন আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক খেলোয়াড়ের ব্যাপারে ভারতের অবস্থান বদলে দিয়েছে। ফলে রাজনৈতিক, কূটনৈতিক, অর্থনৈতিক ও কৌশলগত দিক থেকে অনেক ধরনের পরিবর্তনই দেখা যেতে পারে।

দোকলাম-লাদাখ

মনে হতে পারে যে একটির প্রভাবে আরেকটির সূচনা ঘটেছে। তবে মনে রাখতে হবে, ভারতের হিন্দুত্ববাদী কট্টরপন্থীদের ঘরোয়া রাজনৈতিক শক্তির কারণেই চীন ও পাকিস্তানের প্রতি ভারতের পররাষ্ট্রনীতি কঠোর হচ্ছে এবং স্নায়ুযুদ্ধের পরিবেশে অভ্যন্তরীণ শক্তির রাজনীতিতে তাদের অবস্থান আরো জোরদার হবে। হিন্দুত্ববাদী দর্শন সামাজিক দৃশ্যপটে আরো পরিব্যাপ্ত হবে, সংখ্যালঘু ও উদারমনা লোকদের জন্য দম ফেলার জায়গা আরো কমে আসবে।

আবার নির্মম সত্য হলো, চীন ও ভারতের মধ্যকার অ-ভূখণ্ডগত কৌশলগত হিসাবের বড় অংশষ জুড়ে থাকবে পাকিস্তান। আরেকটি বিষয় মনে রাখতে হবে, এই খেলায় অর্ধেকটা হবে মাঠে, আর বাকিটা হবে মাঠের বাইরে। ফলে পাকিস্তানকে পুরো বিষয়ের দিকে নজর রাখতে হবে।

পাকিস্তানের হতে হবে সংযত ও হিসাবি

পাকিস্তানকে পুরনো স্নায়ুযুদ্ধের হিসাব মনে রেখে নতুন করে প্রস্তুতি নিতে হবে। একেবারে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সম্ভাব্য সব ধরনের দৃশ্যপটের বিষয়টি তাকে মাথায় রাখতে হবে। আর জাতীয় স্বার্থই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সে অনুযায়ী কৌশল প্রণয়ন করতে হবে।

জম্মু ও কাশ্মীর, লাদাখ, জুনাগড় ও স্যার ক্রিক পাকিস্তানের অবিভাজ্য ও অখণ্ড অংশ। আন্তর্জাতিক ফোরামে পাকিস্তানকে তার দাবির ব্যাপারে সোচ্চার হতে হবে।

পাকিস্তানের নতুন স্নায়ুযুদ্ধ

পাকিস্তানের ব্যাপারে ভারত ইতোমধ্যেই ‘নতুন স্বাভাবিক’ অবস্থান গ্রহণ করেছে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে পাকিস্তানকে এ দিকটি মাথায় রেখেই এগুতে হবে।

পাকিস্তান: নজিরবিহীন তাৎপর্যপূর্ণ দেশ

পাকিস্তান হলো ২২ কোটি লোকের দেশ। এখানকার ৬৪ ভাগ লোকের বয়স ৩০-এর নিচে। এর ফলে আফগানিস্তানের পর পাকিস্তান হলো দ্বিতীয় তরুণতম দেশ। প্রশিক্ষণ, বিকশিত ও মূলধারায় আনতে পারলে এই তরুণরা হতে পারে অনন্য সম্পদ।

পাকিস্তানের ভৌগোলিক অবস্থানও নজিরবিহীন। দুটি মহান সভ্যতার মাঝখানে এর অবস্থান। একদিকে রয়েছে তুর্কো-পার্সিয়ান মুসলিম সভ্যতা, অন্যদিকে রয়েছে গঙ্গা-হিন্দু সভ্যতা। পাকিস্তান কেবল অহিন্দু সিন্ধু উপত্যকা সভ্যতার ভূখণ্ডগত উত্তরসূরিই নয়, সেইসাথে হাজার বছর স্থায়ী দক্ষিণ এশিয়ান মুসলিম সভ্যতা ও শাসনের মহান উত্তরসূরিও। অনন্য ভৌগোলিক ইতিহাসের কারণে পাকিস্তানের সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলও স্বতন্ত্র। এর গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ, প্রগতিশীল জনগোষ্ঠী, শক্তিশালী সামরিক ও পরমাণু শক্তি পাকিস্তানকে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দেশে পরিণত করেছে। এ কারণে পাকিস্তান ও পাকিস্তান জাতিকে আত্মবিশ্বাসী হতে হবে। তবে সেইসাথে সার্বভৌমত্ব, জাতীয় স্বার্থ ও সার্বজনীন লালিত মূল্যবোধ রক্ষায় সংযত ও আত্মপ্রত্যয়ীও হতে হবে।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com