1. [email protected] : abulkasem745 :
  2. [email protected] : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. [email protected] : Arafathussain736 :
  4. [email protected] : didarkulaura :
  5. [email protected] : Press loskor : Press loskor
  6. [email protected] : HolyBd24.com :
  7. [email protected] : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. [email protected] : syed sumon : syed sumon
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু মেহেরপুরে নতুন করে ৬৮ জনের করোনা পজিটিভ মোমেনশাহী দর্পণ কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা-২১ অনুষ্ঠিত মেহেরপুরে নতুন করে আরোও ৬৯ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ কালের বিবর্তন: এম. সোহেল রানা ফেঞ্চুগঞ্জে হাস চুরির অপবাদ সইতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে তরুণের আত্নহত্যা  মাওলানা শামসুদ্দোহা ছিলেন একজন আদর্শ শিক্ষক, ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী  বিশ্ববাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সামাদ মিয়া জাকারিয়া  হিংসা-বিদ্বেষ সহ মনের পশুকে পরাজিত করার বাণী নিয়ে এসেছে ঈদুল আযহা, সাইফুল্লাহ আল হোসাইন ভোগে সুখ নয়, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ, ব্যারিস্টার মোস্তাকিম রাজা চৌধুরী আব্দুল আজিজ মাসুক ফাউন্ডেশন এ-র পক্ষ থেকে চিকিৎসার সাহায্যার্থে নগদ অর্থ প্রদান

শিক্ষকদের কাছ থেকে চাঁদাবাজি বন্ধের নির্দেশ

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৬ বার ভিউ

মহামারি করোনাভাইরাস আক্রান্তদের সহায়তার নামে মাঠপর্যায়ে নির্বিচারে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করা হচ্ছে এমন অভিযোগ পাওয়ার পর তা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ স্বাক্ষরিত বুধবার (২৩ এপ্রিল) এক চিঠিতে এ আদেশ দেওয়া হয়। আদায় করা চাঁদা শিক্ষকদের ফেরত দেয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়।

এতে বলা হয়, করোনা রোগীদের সহায়তায় প্রাথমিক শিক্ষকরা তাদের বৈশাখী ভাতার ২০ শতাংশ অর্থ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা দিয়েছেন। এছাড়া অনেকে নিজের সামর্থ অনুযায়ী সহায়তা করছেন। সম্প্রতি ত্রাণ সহায়তার নামে শিক্ষকদের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করা হচ্ছে মর্মে সংবাদ মাধ্যমে খবর পাওয়া যাচ্ছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ড বেআইনি।

এরআগে উপজেলায় শিক্ষকদের মাথাপিছু ৫০০ থেকে এক হাজার টাকা চাঁদা দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। আবার অসচ্ছল ও দরিদ্র শিক্ষার্থীদের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য শিক্ষকদের নূ্ন্যতম কোনো সুরক্ষা সরঞ্জাম দেওয়া ছাড়াই শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি যেতে বাধ্য করছেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা। এতে শিক্ষকদের মধ্যে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, লকডাউনের মধ্যেই তাদের দিয়ে স্থানীয় বিদ্যালয়ের ক্যাচমেন্ট এলাকার দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকের তথ্য সংগ্রহের কাজ করানো হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন বিভাগের প্রাথমিক শিক্ষার বিভাগীয় উপপরিচালকের টেলিফোনিক নির্দেশে এই তথ্য সংগ্রহ করতে হচ্ছে।

যেসব বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে, সেসবের মধ্যে রয়েছে- সংশ্নিষ্ট বিদ্যালয় ও ক্যাচমেন্ট এলাকার অভিভাবকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ভিজিডি, ভিজিএফ, ১০ টাকা কেজির চাল ও অন্যান্য সরকারি বরাদ্দপ্রাপ্ত পরিবারের তালিকা তৈরি, অসচ্ছল ও সুবিধাবঞ্চিত পরিবারের সংখ্যা নির্ধারণ করে কোন শিক্ষক কতটি অসচ্ছল বা দরিদ্র পরিবারকে মানবিক সাহায্য করেছেন এবং কী ধরনের সাহায্য করেছেন তার বিবরণ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো তালিকাভুক্ত দরিদ্র পরিবারের সংখ্যা নির্ধারণ। এসব তথ্য নির্দিষ্ট ছক আকারে তাদের উপজেলা শিক্ষা অফিসে পাঠাতে হচ্ছে।

উপপরিচালকদের টেলিফোনিক নির্দেশের উল্লেখ করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসাররা (ডিপিইও) এ-সংক্রান্ত চিঠি ইস্যু করেছেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে। এ চিঠির ৫নং কলামের সুযোগ নিয়ে অনেক উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শিক্ষকদের কাছ থকে ৫০০ থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত চাঁদা দিতে বাধ্য করছেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা পিয়নদের সহকারী শিক্ষকদের বাড়িতে পাঠিয়ে এই চাঁদা আদায় করাচ্ছেন। আবার অনেক উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ইউএনওর ত্রাণ তহবিলের জন্য শিক্ষকদের কাছ থেকে এক দিনের বেতনের সমপরিমাণ টাকা বেতন থেকে কেটে নিচ্ছেন।

মাঠপর্যায়ের প্রাথমিক শিক্ষকরা জানান, মাত্র কয়েকদিন আগে তারা বৈশাখী ভাতার ২ শতাংশ হিসেবে প্রায় ৩০ কোটি টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা দিয়েছেন। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সঙ্গে প্রাথমিক শিক্ষক নেতা ও কর্মকর্তাদের আলোচনার পর স্বেচ্ছায় এই অনুদান দেওয়া হয়। এখন আবারও করোনা আক্রান্তদের ত্রাণের জন্য টাকা দিতে বাধ্য করায় শত শত শিক্ষক অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এদিকে চিঠিতে বিদ্যালয়ের নাম উল্লেখ থাকায় প্রধান শিক্ষকরা টাকা কালেকশন করতে উঠেপড়ে লেগেছেন।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com