1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষ আমাদের সাহিত্যকে জানুক : প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৪ বার ভিউ

হলিবিডি প্রতিনিধিঃ আজ বইমেলা প্রস‌ঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা বলেছেন, ‘একুশের গ্রন্থমেলা বলেন, আর বইমেলাই বলেন, বইমেলা বলতেই বেশি আপন আপন মনে হয়। আমি চাই, আমাদের সাহিত্যের আরও অনুবাদ হোক। বিশ্বের বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষ আমাদের সাহিত্যকে জানুক, আমাদের সংস্কৃতিকে জানুক। বাংলা একাডেমি এ বিষয়ে যথেষ্ট উদ্যোগ নিয়েছে।’

রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) বি‌কে‌লে মাসব্যাপী অমর একু‌শে বই মেলার উদ্বোধনীয় অনুষ্ঠা‌নে তি‌নি এসব কথা ব‌লেন। অনুষ্ঠা‌নের শুরু‌তেই জাতীয় সঙ্গীত ও সূচনা সঙ্গীত প‌রি‌বেশন করা হয়। মহান ভাষা আন্দোল‌নে শহীদ‌দের প্র‌তি শ্রদ্ধা জা‌নি‌য়ে দাঁড়ি‌য়ে এক মি‌নিট নীরবতা পালন করা হয়।

শেখ হা‌সিনা ব‌লেন, ‘আমাদের শিল্প, কলা, সাহিত্য, সংস্কৃতিকে আমরা আরও উন্নতমানের করে শুধু আমাদের দেশে না, বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দিতে চাই।’

অনুষ্ঠা‌নে সভাপ‌তিত্ব ক‌রেন- বাংলা একা‌ডেমির সভাপ‌তি ও জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিছুজ্জামান। অনুষ্ঠা‌নে সূচনা বক্তব্য রা‌খেন, বাংলা একা‌ডেমির মহাপ‌রিচালক ক‌বি হা‌বিবুল্লা সিরা‌জি।

সংস্কৃতি বিষয়ক প্র‌তিমন্ত্রী কে এম খা‌লিদ এবং পুস্তক প্রকাশ ও বি‌ক্রেতা‌দের পক্ষ থে‌কে বক্তব্য রা‌খেন আরিফ হো‌সেন ছোটন। অনুষ্ঠানে ১০ জনকে বাংলা একা‌ডেমি সা‌হিত্য পুরস্কার তু‌লে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। এবার পুরস্কা‌রে অর্থের পরিমাণ বাড়া‌নো হ‌য়ে‌ছে। এবার অর্থমূ‌ল্য হ‌চ্ছে তিন লাখ টাকা।

বই মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠা‌নে বঙ্গবন্ধু র‌চিত ‘আমার দেখা নয়া চীন’ গ্রন্থ‌টির মোড়ক উন্মোচন ক‌রেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’ প্রকাশিত হলেও চীন সফরের অভিজ্ঞতা নিয়ে লেখাটি সব থেকে পুরনো বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে এবারের একুশে গ্রন্থমেলা উৎসর্গ করা হয়েছে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

লেখক-প্রকাশক-পাঠকদের সবচেয়ে বড় আয়োজন অমর একুশের গ্রন্থমেলা। বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রায় ৮ লাখ বর্গফুট জায়গায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের বই মেলা। এবার সমগ্র মেলা প্রাঙ্গণে মুজিববর্ষ উদযাপনের ছোঁয়া লেগেছে। নানন্দিকভাবে সাজানো হয়েছে এবারের মেলা প্রাঙ্গণ।

এবারের গ্রন্থমেলায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ১২৬টি প্রতিষ্ঠানকে ১৭৯টি স্টল ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৪৩৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৬৯৪টি স্টলসহ মোট ৫৬০টি প্রতিষ্ঠানকে ৮৭৩টি স্টল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়া বাংলা একাডেমিসহ ৩৩টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানকে ৩৪টি প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

লিটল ম্যাগাজিন চত্বর স্থানান্তরিত হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে। ১৫২টি লিটলম্যাগকে স্টল বরাদ্দ ছাড়াও ৬টি উন্মুক্ত স্টল রাখা হয়েছে। ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে এ মেলা।

ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মেলা। আর ছুটির দিনে মেলা খোলা থাকবে বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

২১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত এ গ্রন্থমেলা খোলা থাকবে। প্রতিদিন বিকেল ৪টায় গ্রন্থমেলার মূল মঞ্চে সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে জাতির পিতাকে নিয়ে ২৫টি বই প্রকাশ করেছে বাংলা একাডেমি। নতুন এসব বই নিয়েও আলোচনা করা হবে। এছাড়াও প্রতিদিন সন্ধ্যায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com