1. abulkasem745@gmail.com : abulkasem745 :
  2. Amranahmod9852@gmail.com : Amranahmod Amranahmod : Amranahmod Amranahmod
  3. Arafathussain736@gmail.com : Arafathussain736 :
  4. didar.kulaura@gmail.com : didarkulaura :
  5. Press.loskor@gmail.com : Press loskor : Press loskor
  6. Rezwanfaruki@gmail.Com : HolyBd24.com :
  7. Sohelrana9019@gmail.com : M Sohel Rana : M Sohel Rana
  8. syedsumon22@yahoo.com : syed sumon : syed sumon
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কোরবানপুর যুব সমাজের উদ্যোগে দেশের এবং প্রবাসীদের অর্থায়নে অবহেলিত রাস্তার আংশিক মেরামতের কাজ শুরু খুলনায় চালের দাম আরও বেড়েছে, বৃদ্ধির তালিকায় ব্রয়লার মুরগি নামাজরত অবস্থায় মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করলেন মা সমন্বয়ের অভাবে চট্টগ্রামে কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন হচ্ছে না: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ ১২ বছরের নিরন্তর পরিশ্রমের ফসল – প্রধানমন্ত্রী আরও ৩ কোটি ডোজ টিকা আনা হবে : প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব মুসলিম ব্যক্তিত্ব অ্যাওয়ার্ড পেলেন এরদোগান খুলছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রমজান মাসেও ক্লাস চলবে নবীগঞ্জে এ কেমন শত্রুতা: বিষ প্রয়োগ করে ২৫০টি হাঁস নিধন! আজ হবিগঞ্জ পৌরসভায় ভোট জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার মূল্যবোধকে নির্বাসনে পাঠিয়েছিলেন: ওবায়দুল কাদের

গ্যাস কোম্পানি বেকায়া ৮ হাজার ৮৩২ কোটি টাকা।

প্রতিবেদকের নাম
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ১৪ বার ভিউ

ঢাকা প্রতিনিধিঃ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও গ্রাহকের কাছে গ্যাস বিতরণ ও উত্তোলন কোম্পানিগুলোর বকেয়ার পরিমাণও আকাশ ছুঁয়েছে। এখন পর্যন্ত গ্যাস কোম্পানিগুলোর মোট বকেয়ার পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৮৩২ কোটি টাকা। সম্প্রতি জ্বালানি বিভাগের এক সমন্বয় সভায় এসব বকেয়ার বিষয়ে এই খাতের ৯টি প্রতিষ্ঠান প্রতিবেদন দিয়েছে।

কোম্পানিগুলো জানায়, তারা বারবার গ্রাহক ও প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে পাওনা টাকা পরিশোধের জন্য চিঠি দিয়েছে। কেউ কেউ কিছু টাকা পরিশোধ করলেও বকেয়া পাওনার পরিমাণ কমছে না। এই পাওনা টাকা আদায়ে আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে জ্বালানি বিভাগ। বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষেত্রে আলোচনা করে দুই পক্ষের অভিমত নিয়ে টাকা কীভাবে পরিশোধ করা যায়, সে বিষয়ে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এই বকেয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি বকেয়ার পরিমাণ তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (টিজিটিডিসিএল)-এর। এই সংস্থাটি গ্রাহকের কাছে প্রায় ৪ হাজার ৬০৩ কোটি টাকা বাকি পড়েছে। এরপর আছে কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (কেজিডিসিএল)। তাদের গ্রাহকের কাছে বকেয়া ৭৩৯ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এরপর বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানি লিমিটেড (বিজিএফসিএল)। তাদের পাওনা ৬৮৯ কোটি ৩ লাখ টাকা। গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানি লিমিটেড (জিটিসিএল) বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে পাওনা ৬৭৭ কোটি ৩ লাখ টাকা। জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড (জেজিটিডিএসএল)-এর গ্রাহকের কাছে পাওনা ৬৭০ কোটি ৮১ লাখ টাকা। সিলেট গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানি লিমিটেড (এসজিএফএল) বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাছে পাবে ৬৩৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। বাপেক্সের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে পাওনা ৪৪১ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। পশ্চিমাঞ্চল গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড (পিজিসিএল) তাদের গ্রাহকের কাছে পাবে ২২১ কোটি ৭২ লাখ টাকা। রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড (আরপিজিসিএল) বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে পাবে ১৫২ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। এই হিসাবে গ্যাস কোম্পানিগুলোর মোট বকেয়ার পরিমাণ ৮ হাজার ৮৩২ কোটি ৩৫ লাখ টাকা।

সবচেয়ে বেশি বকেয়া পড়ে থাকা কোম্পানি তিতাস। এই কোম্পানির একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা আবাসিকের গ্যাস বিল যেন বকেয়া না থাকে, সে জন্য প্রি-পেইড মিটার সংযোজন করছি। কিন্তু এই প্রক্রিয়াও চলছে ঢিমেতালে। একসঙ্গে সব গ্রাহককে প্রি-পেইড মিটারে গ্যাস বিতরণ শুরু হলে এই সংকট কেটে যাবে।’ তবে, শিল্পে এই সংকট কাটানোর উদ্যোগ সবার আগে নিতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এখানেই সবচেয়ে বেশি বিল বকেয়া থাকে। কোনও কোনও শিল্পের উদ্যোক্তা মামলা করে বিল দেওয়া আটকে রেখেছেন। এসব বিষয়ে আমরা আলোচনা করছি। তবে কোনও কোনও ক্ষেত্রে এখনও সমাধান হয়নি। এজন্য অনেক টাকাই গ্রাহকের কাছে পড়ে রয়েছে।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জ্বালানি বিভাগের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে বারবার পাওনা টাকা আদায়ের জন্য চিঠি দিচ্ছি। অনেকের সঙ্গে আলোচনাও চলছে। এরপরও যারা বকেয়া টাকা আদায়ের ক্ষেত্রে অবহেলা করবে অথবা বকেয়া দেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও রকম পদক্ষেপ নেবে না, তাদের ক্ষেত্রে কোম্পানিগুলোকে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

জ্বালানি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আগে বিল বকেয়া থাকলেও কোনও সমস্যা হতো না। এখন এলএনজি আমদানি করতে হয়। তাই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের বিল পরিশোধ করতে হয়। বিল পরিশোধ না কলে পেট্রো বাংলাকে গুনতে হয় জরিমানা। এজন্য বিতরণ কোম্পানির ওপরও বেশি চাপ দেওয়া হচ্ছে।’ যেন তারা ঠিকঠাক বিল আদায় করে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

নিউজ টি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা মন্ডলী

কাউন্সিলর এডভোকেট ছালেহ আহমদ সেলিম,
এডভোকেট গিয়াস উদ্দিন আহমদ,
প্রভাষক ডাঃ আক্তার হোসেন,
প্রকাশনা ও সম্পাদক রেজওয়ান আহমদ,
প্রধান সম্পাদক কবি এম এইচ ইসলাম,
বার্তা সম্পাদক এমরান আহমদ,
ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আব্দুল আলী দেওয়ান আব্দুল্লাহ,
সহ ব্যবস্হাপনা সম্পাদক আমির হোসেন,
সাহিত্য সম্পাদক কবি সোহেল রানা,
বিভাগীয় সম্পাদক আমিনুর ইসলাম দিদার

© All rights reserved © 2020 Holybd24.com
Design & Developed BY Serverneed.com