এই মাত্র পাওয়া খবর
|
সর্বশেষ
ফেঞ্চুগঞ্জে কয়েস নয়, নৌকার পক্ষে প্রচারণা, এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড়         ছকাপন যুব সমাজের উদ্দ্যোগে বিজয় দিবস উদযাপন         সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে রুমন ও সোহেল স্মৃতি স্পোর্টিং ক্লাব এর ফাইনাল খেলা অনুষ্টিত।         বিজয় দিবসে বঙ্গবন্ধু লেখক সাংবাদিক ফোরাম সিলেট জেলা শাখার শ্রদ্ধাঞ্জলি         জামেয়া মোহাম্মদীয়া চিলারকান্দি মাদরাসায় বিজয় দিবস উদযাপন         দারুল উলূম সিলেট মাদ্রাসায় মহান বিজয় দিবস পালন         সিলেট ৩ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী শফি চৌধুরীর গণসংযোগ।         নারীদের অবদানে রাজশাহী আরও এগিয়ে যাবে : মেয়র লিটন         ২৪ থেকে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন         বাংলাদেশ জিজ্ঞাসা || কে পাচ্ছেন কোটি টাকা?         ড. কামালের ওপর হামলা ফৌজদারি অপরাধ, গ্রেফতারের ক্ষমতা আছে সেনাবাহিনীর-কে এম নূরুল হুদা         ভোট চাইলেন চরমোনাই পীর         আ.লীগের ইশতেহার ঘোষণা ১৮ তারিখ         ওয়ানডেতে সাফল্য : বিশ্বে তৃতীয় বাংলাদেশ         ব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ, থমথমে নোয়াখালী        

ইতিহাস ও ঐতিহ্য

তাহিরপুরে মাথা উঁচু করে দাঁড়াচ্ছে ১২০০বছরের পুরোনো ‘রাজধানী চিহ্ন’

সুনামগঞ্জ :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় ১২০০পর মাথা উঁচু করে দাঁড়াচ্ছে প্রাচীন লাউড় রাজ্যের রাজধানী হলহলিয়া দূর্গ ও ব্রাহ্মনগাঁওয়ের গৌর গোবিন্দের রাজবাড়িটি। তাহিরপুর উপজেলার উত্তর বড়দল ও দক্ষিন বড়দল ইউনিয়নের মধ্যবর্তি স্থান হলহলিয়া গ্রামে। এই দৃশ্য দেখতে জমায়েত হচ্ছে প্রতিনিধি শত শত মানুষ।গত বুধবার(১৪ নভেম্বর)দুপুর থেকে শুরু হওয়া উৎখনন কাজের মধ্য দিয়ে পুরনো রাজবাড়িটি তার অতীত ইতিহাস ঐহিত্য নিয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে শুরু করেছে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান ডঃ মোহাম্মদ সাদিকের প্রচেষ্টায়। দুই মাসব্যাপি চলবে উৎখননের কাজ প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তর চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আঞ্চলিক পরিচালক ডঃ মুহাম্মদ আতাউর রহমান নেতৃত্বে ৯সদস্য বিশিষ্ট টিমে রয়েছেন ঢাকা প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের সহকারি ...

বিস্তারিত »

ইন্টারনেট ব্যবহারে বাংলাদেশ পঞ্চম, শীর্ষ চীন

হলিবিডি ডেস্ক::::এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন চীনের নাগরিকেরা। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান পঞ্চম। বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বৃদ্ধির হার সবচেয়ে বেশি। বর্তমানে বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বৃদ্ধির হার ৮০ হাজার ৩৮৩ শতাংশ। ইন্টারনেট ওয়ার্ল্ড স্ট্যাটাস প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। ভারতের নয়াদিল্লি থেকে এ খবর দিয়েছে ডাটালিডস। ২০১৭ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যা প্রায় ১৭ কোটি। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এর আগে ২০০০ সালে ১৩ কোটি ১৫ লাখ জনসংখ্যার বিপরীতে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল মাত্র ১ লাখ। ...

বিস্তারিত »

আজ সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের নবম মৃত্যু বার্ষিকী

হলিবিডি ডেস্কঃ বাংলাদেশের আধুনিক অর্থনীতির রূপকার কে? যখন কোন সত্য সন্ধানী এই প্রশ্নটির উত্তর খুঁজতে যাবে তখন যে ব্যক্তিটির কথা ফ্রন্ট লাইনে চলে আসবে তিনি আর কেউ নন, তিনি হচ্ছে মরহুম সাইফুর রহমান। আজ বাংলাদেশ যতটুকু অর্থনৈতিক সমৃদ্ধতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে, তার পিছনে আছে সাইফুর রহমানের যুগান্ত সৃষ্টিকারী অর্থনৈতিক রোডম্যাপ এবং সে রোডম্যাপের আলোকে দেশের অর্থনীতিকে পরিচালিত করা। দেশে পাঁচ বছর পরপর সরকার বদল হলেও আজ পর্যন্ত সাইফুর রহমানের প্রদর্শিত অর্থনীতির রূপরেখাকে কেউ বদল করেননি, বরং বিভিন্ন সরকার সেই নীতির আলোকে দেশের অর্থনীতিক মানদণ্ডকে ক্রমান্বয়ে এগিয়ে নিয়ে চলছেন। সাইফুর রহমান দেশ জাতির জন্য যা করে গেছেন তা অনেক অর্বাচীনদের ...

বিস্তারিত »

স্বাধীনতা যুদ্ধের সূতিকাগার মুজিবনগর এবং ১৭ এপ্রিল প্রসঙ্গে…[তৃতীয় পর্ব]

এম.সোহেল রানা; মেহেরপুর . মুজিবনগর স্মৃতিসৌধের স্থাপত্য ও তাৎপর্যঃ- পূর্বের নাম বৈদ্যনাথতলা আম্রকানন তথা বর্তমান নাম মুজিবনগর। এই মুজিবনগর স্মৃতিসৌধের স্থপতি হলেন- জনাব,তানভীর কবির। লাল মঞ্চ- ১৯৭১ সালের ১৭ই এপ্রিল বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার যে স্থানে শপথ গ্রহণ করে ঠিক সেই স্থানে ২৪ ফুট দীর্ঘ ও ১৪ ফুট প্রশস্থ সিরামিকের ইট দিয়ে একটি আয়তকার লাল মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। যা মুজিবনগর স্মৃতিসৌধের ভিতেরে মাঝখানে। ২৩টি স্মৃতি স্তম্ভ- স্মৃতিসৌধটি ২৩ টি ত্রিভূজাকৃতি দেয়ালের সমন্বয়ে গঠিত। যা বৃত্তাকার উপায়ে সারিবদ্ধভাবে সাজানো রয়েছে। ২৩ টি দেয়াল [আগষ্ট ১৯৪৭] থেকে [র্মাচ ১৯৭১]- এই ২৩ বছরের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রতীক হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে। প্রথম দেয়ালটির উচ্চতা ৯ ...

বিস্তারিত »

স্বাধীনতা যুদ্ধের সূতিকাগার মুজিবনগর এবং ১৭ এপ্রিল প্রসঙ্গে…

এম.সোহেল রানা :: . [দ্বিতীয় পর্ব] . কে.এফ রুস্তামজী দিল্লির ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করলে তাকে জানানো হয় তাজউদ্দীন আহমদ ও ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলামকে নিয়ে দিল্লি চলে আসার জন্য। উদ্দেশ্য, তৎকালীন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মহীয়সী নারী ইন্দিরা গান্ধী এবং তাজউদ্দীন আহমদের বৈঠক। দিল্লিতে যাবার পর ভারত সরকার বিভিন্ন সূত্র থেকে নিশ্চিত হন যে, তাজউদ্দীন আহমদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠতম সহকর্মী। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকের আগে ভারত সরকারের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাজউদ্দিন আহমদের কয়েক দফা বৈঠক হয় এবং তিনি তাদের বাঙালীর মুক্তি সংগ্রাম পরিচালনার জন্য যেসব সাহায্য ও সহযোগিতার প্রয়োজন তা বুঝিয়ে বলেন। এসময় তিনি উপলব্ধি করেন যে, আওয়ামী ...

বিস্তারিত »

স্বাধীনতা যুদ্ধের সূতিকাগার মুজিবনগর এবং ১৭ এপ্রিল প্রসঙ্গে…

এম.সোহেল রানা; মেহেরপুর . [প্রথম পর্ব] বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূতিকাগার তৎকালীন (বৈদ্যনাথতলা আম্রকানন) তথা বর্তমান নাম মুজিবনগর, আর এই মুজিবনগর থেকেই হয়েছিল স্বাধীনতাযুদ্ধের প্রশিক্ষন গ্রহন, গঠণ হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধ চলাকালিন অস্থায়ী মুজিবনগর সরকার, মুক্তিযুদ্ধ ও সরকার পরিচালনার প্রত্যয়ে গ্রহন করেছিল শপথ, গড়েছিল মাত্র ন’মাসে বিশ্বের দরবারে একমাত্র বাঙালী জাতিই রক্তক্ষয়ে অধিকার আদায় কল্পে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের শ্রেষ্ঠ ইতিহাস। তাই মুজিবনগরকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতার কথা বলা একে বারেই অসম্ভব। মেহেরপুরের মুজিবনগরে ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের অস্থায়ী সরকার গঠণ করা হয়েছিল এবং মুজিবনগরকে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন অস্থায়ী রাজধানী করা হয়েছিল, বর্তমানে বছরের সব সময়ই বহু দূর-দূরান্ত হতে প্রচুর পরিমানে মানুষ (বৈদ্যনাথতলা আম্রকানন) তথা মুজিবনগর পরিদর্শণ, শিক্ষা ...

বিস্তারিত »

আজ ভয়াল সেই কাল রাত

হলিবিডি ডেস্ক :: আজ ভয়াল ২৫ মার্চ। জাতীয় গণহত্যা দিবস। গত বছরের ১১ মার্চ জাতীয় সংসদে আজকের এই দিনটিকে জাতীয় গণহত্যা দিবস পালনের প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হওয়ার পর থেকেই দিনটি জাতীয় গণহত্যা দিবস হিসাবে পালিত হয়ে আসছে। ১৯৭১ সালের এইদিনে বাঙালি জাতির জীবনে এক বিভিষিকাময় রাত নেমে আসে। মধ্যরাতে বর্বর পাকিস্তানী হানানদার বাহিনী কাপুরুষের মত তাদের পূর্ব পরিকল্পিত অপারেশন সার্চলাইটের নীলনকসা অনুযায়ী আন্দোলনরত বাঙালিদের কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দেয়ার ঘৃণ্য লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে নিরস্ত্র বাঙালিদের ওপর অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। দিনটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। জাতীয়ভাবে ২৫ মার্চের এই রাতে সারাদেশে ...

বিস্তারিত »

রাজকুমারী ইন্দু প্রভার ১২০ বছর আগে লেখা ২৮৫ প্রেমপত্র

নাটোর : প্রেমপত্র। সে যদি হয় রাজকন্যার, ১২০ বছর আগে লেখা। কোনো সন্দেহ নেই, আজ তার একটি বাক্য পড়ে পাঁচ মিনিট চোখ বন্ধ করে ভাবতে হবে। দিঘাপতিয়ার রাজকন্যা ইন্দুপ্রভার গোপনে তুলে রাখা এ রকম ২৮৫টি পত্রের সন্ধান মিলেছে। নাটোর জেলা প্রশাসনের ট্রেজারিতে চাবিহীন একটি ট্রাঙ্ক থেকে গত সোমবার (৫ মার্চ) এগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। শুধু পত্র নয়, পাওয়া গেছে তার অপ্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের পাণ্ডুলিপি, দিনলিপি, রুপার ফ্রেমে বাঁধানো ছবি, প্রাচীন পদ্ধতিতে লেখার কাজে ব্যবহৃত রাজকন্যার দোয়াত-কলমসহ আরও অনেক কিছু। এ ছাড়া গ্রামের মানুষের বাড়িতে মিলেছে রাজবাড়ির সিন্দুক, রাজা-রানির ছবিসহ অনেক ঐতিহাসিক জিনিসপত্র। এর সঙ্গে এত দিন আড়ালে থাকা মহামূল্যবান পাথরখচিত রাজমুকুট, ...

বিস্তারিত »

গণঅভ্যুত্থান দিবস কাল…

হলিবিডি ডেস্ক :: আগামীকাল বুধবার (২৪জানুয়ারী) বাঙালি জাতির স্বাধিকার আন্দোলনের অন্যতম প্রধান মাইলফলক ঊনসত্তরের ঐতিহাসিক গণ-অভ্যুত্থান দিবস। মুক্তিকামী নিপীড়িত জনগণের পক্ষে জাতির মুক্তি সনদ খ্যাত ৬ দফা এবং পরবর্তীতে ছাত্র সমাজের দেয়া ১১ দফা কর্মসূচির প্রেক্ষাপটে সংঘটিত হয়েছিল এ গণঅভ্যুত্থান। দিবসটি পালন উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শহীদ মতিউর স্মৃতিসৌধে (নবকুমার ইনস্টিটিউট, বকশীবাজার, ঢাকা) শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। দিবসটি পালন উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে সবাইকে উনসত্তরের গণ-অভ্যুত্থানের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানিয়ে ...

বিস্তারিত »

যেভাবে বাংলাদেশে শুরু হলো বিশ্ব ইজতেমা

হলিবিডি ডেস্ক : আজ থেকে প্রায় শতবর্ষ আগে ১৯২৭ খ্রিস্টাব্দে মাওলানা ইলিয়াস (রাহ.) ভারতের উত্তর প্রদেশের সাহরানপুর এলাকায় ইসলামী দাওয়াত তথা তাবলিগের প্রবর্তন করেন এবং একই সঙ্গে এলাকাভিত্তিক সম্মিলন বা ইজতেমারও আয়োজন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় তা বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। দিন দিনি বাড়তে থাকে তাবলিগের প্রচার-প্রসার ও ব্যাপকতা। তাবলিগের সাথী সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে ১৯৬৬ সাল থেকে টঙ্গীতে ইজতেমা আয়োজন শুরু হয়। বাংলাদেশে তাবলিগ ১৯৫০-এর দশকে বাংলাদেশে তাবলিগের দাওয়াতি কাজ শুরু হয়। আর তা ১৯৪৬ সালে ঢাকার রমনা পার্ক সংলগ্ন কাকরাইল মসজিদ থেকে যাত্রা শুরু করে। তৎকালীন সময়ে মাওলানা আব্দুল আজিজ (রাহ.) বাংলাদেশে ইজতিমার হাল ধরেন। তখন থেকেই বাংলাদেশে তাবলিগ ...

বিস্তারিত »