Main Menu

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে গ্রাম পুলিশ মকদ্দছ আলীর বিরুদ্ধে লুটপাটের অভিযোগ।

ক্রাইম রিপোর্টার :::::
সিলেট জেলার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়া ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ মকদ্দছ আলীর বিরুদ্ধে বসতঘরের মুল্যবান জিনিসপত্র লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে এবং এবিষয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বসতঘরের মালিক ফিরোজা বেগম।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায় উপজেলার ঘিলাছড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ আশিঘর গ্রামের মৃত তরমুজ আলীর পুত্র মকদ্দছ আলী বিগত ৫ সেপ্টেম্বর রাত ৯ টার সময় ১০/১২ জন সংঘবদ্ধ দল নিয়ে একি গ্রামের মাহমদ আলীর বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে ঘরের ডিপ দরজা ভেংগে রুমে থাকা মুল্যবান জিনিসপত্র লুটপাট করে নিয়ে যায়। এসময় পাড়া প্রতিবেশীরা তাদেরকে দেখে বাধা দিলে মকদ্দছ আলী সহ সংঘবদ্ধ দল দেশিও অস্ত্র দিয়ে প্রতিবেশীদের ভয়- ভীতি দেখিয়ে পালিয়ে যায়।

এবিষয়ে মাহমদ আলীর স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৮ সেপ্টেম্বর) ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দেন এবং অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ,এস আই আব্দুর রাজ্জাক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসেন। এবং এই প্রতিবেদকের কাছে তিনি বলেন আমরা অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আসছি। ঘটনার সত্যতা যানতে চাইলে তিনি বলেন তদন্ত চলছে পরে জানানো হবে।

অনুসন্ধানে জানা যায় মকদ্দছ আলীর বিরুদ্ধে বিগত ২০১৬ সালে একটি মামলা হয় যার নং ১০০ পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালত উভয় পক্ষের শুনানি করে এবং আসামী মকদ্দছ আলীকে দোষী সাবস্ত্য করে ১ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে।
এর পরে আবারো মকদ্দছ আলীর বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে জি,আর মামলা হয় যার নং ১৬। উক্ত মামলা উভয় পক্ষের শুনানি অন্তে আসামী মকদ্দছ আলী সহ তার সহযোগীদের বিজ্ঞ আদালত দোষী সাবস্ত্য করে ৬ মাসের স্বশ্রমকারাদন্ড ও ২.০০০/= টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে।






Related News

Comments are Closed