Main Menu

শেখ কামাল বহুমাত্রিক অনন্য সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী ছিলেন

হলিবিডি ডেস্কঃ
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জ্যেষ্ঠ পুত্র মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ সভা ও মিলাদ মাহফিল করেছে নগর ও জেলা আওয়ামী লীগ।

নগর আ’লীগের সভাপতি ও কেসিসি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে গতকাল বাদ মাগরিব দলীয় কার্যালয়ে এই স্মরন সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। নগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান ও জেলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক এড. ফরিদ আহমেদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, “শেখ কামাল তৎকালীন সময় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একজন নেতা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন মেধাবী ছাত্র, বহুমাত্রিক অনন্য সৃষ্টিশীল প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। এছাড়া তিনি একজন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও সংস্কৃতিমনা ব্যক্তিত্ব ছিলেন। তিনি আবাহনী ক্রীড়া চক্র, তৎকালীন ইকবাল স্পোটিং ক্লাব ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ঢাকা থিয়েটার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশকে পরিচিতি লাভ করিয়েছেন। তৎকালীন সময়ের স্বাধীনতা বিরোধী চক্র বঙ্গবন্ধু পরিবারের নামে অপপ্রচার করে ও গুজব রটিয়ে ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করেছে। আমরা মনে করি এখনো যারা পদ্মা সেতু, ছেলে ধরা নিয়ে গুজব সৃষ্টি করছে তারা একই সূত্রে গাঁথা। সকল নেতা কর্মীদের শেখ কামালের আদর্শকে ধারণ করে প্রধানমন্ত্রীর মিশন ও ভিশন বাস্তবায়ন করার জন্য আহ্বান জানানো হয়।”

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এড. সুজিত অধিকারী, আ’লীগ নেতা এড. চিশতি সোহরাব হোসেন শিকদার, এমডিএ বাবুল রানা, মুক্তিযোদ্ধা নূর ইসলাম বন্দ, শেখ মোঃ ফারুখ আহমেদ, কামরুজ্জামান জামাল, শ্যামল সিংহ রায়, খন্দকার মুজিবুর রহমান, অধ্যক্ষ শহিদুল হক মিন্টু, মকবুল হোসেন মিন্টু, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, জোবায়ের আহমেদ খান জবা, অধ্যাপক মিজানুর রহমান, হাফেজ মোঃ শামীম, মোঃ মফিদুল ইসলাম টুটুল, নূর মোহম্মদ, কাউন্সিলর ফকির মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোজাম্মেল হক হাওলাদার, হুমায়ুন কবির ববি, আবুল কাশেম মোল্লা, অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম, মালিক সরোয়ার, রনজিত কুমার ঘোষ, মোতালেব হোসেন, শফিকুর রহমান পলাশ, মোঃ মনিরুজ্জামান খান খোকন, পারভেজ হাওলাদার, আসাদুজ্জামান রাসেল, মোঃ ইমরান হোসেন, এস এম হোসেনুজ্জামান হোসেন, রনবীর রাড়ৈ সজল, মাসুদ হোসেন সোহান, শাহীন আলম, চয়ন বালা, শাহ আরাফাত রাহিব, রুমান আহমেদ, প্রমুখ। স্মরণ সভা শেষে শেখ কামালের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া প্রার্থনা করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন হাফেজ মাওলানা মোঃ শাহেদ হুসাইন।

অপরদিকে এ উপলক্ষে খুলনা আবাহনী ক্রীড়া চক্রের উদ্যোগে আবাহনী ক্লাব মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বাবলু। পরিচালনা করেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ পারভেজ হাওলাদার। বক্তৃতা করেন আ’লীগ নেতা হুমায়ুন কবির ববি, রফিকুর রহমান রিপন, ক্লাব কর্মকর্তা শেখ হেমায়েত উল্ল¬াহ, ফয়সাল আহম্মেদ পাপ্পা, মফিকুল ইসলাম, মনিরুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন, রেজাউল রাহা, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, জিলান ফারুক, ছাত্রনেতা মোঃ মারুফ হোসাইন, মিরাজুল ইসলাম, জাকারিয়া রহমান ওমান, শেখ রাসেল, হেলাল বাবু, শাহ নেওয়াজ নান্নু। আলোচনা শেষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহিদদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে কোর্ট মসজিদের ইমাম মোঃ শাহাদাৎ হোসেন মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন।

এদিকে এ উপলক্ষে নগর ছাত্রলীগ স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে। গতকাল বাদ মাগরিব দলীয় কার্যালয়ে এ স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, মাসুদ হোসেন সোহান, রণবীর বাড়ই সজল, এখতিয়ার মোল্লা, দিদারুল আলম, রহমত সরদার, মেহেদী হাসান সুজন, মাহামুদুল হাসান সুজন, আব্দুস সালাম, মোঃ হুজ্জাতুল্লা, শেখ শান্ত ইসলাম, শিকদার রাসেল, ইবনুল হাসান, মাহমুদুর রহমান রাজেস, আব্দুল কাদির সৈকত, এম এ হোসেন সুজন, রেজোয়ান মোড়ল, বায়েজিদ সিনা, বখতিয়ার খলজি, শাহীন আলম, আহনাফ অর্পন, মোঃ রাজু হোসেন, জোয়েব সিদ্দিকী, সাগর মিত্র চিন্ময়, মোঃ সাইফুল ইসলাম, পারভেজ শিকদার, সাজু দাশ, মশিউর রহমান বাদশা, ইসতিয়াক জয়, শংকর কুন্ড, টিকলী শরিফ, সোহানুর রহমান, রায়হান শেখ মুন্না, অভিজিৎ সরকার রাহুল, সোহান সাদী, সাবিক হাসান স্বপ্ন, অরিন্দম চক্রবর্তী, শফিকুল ইসলাম মুন্না, রুমান আহমেদ, রফিকুল ইসলাম মাসুম প্রমুখ। স্মরণ সভা শেষে শেখ কামালের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া প্রার্থনা করা হয়।






Related News

Comments are Closed