এই মাত্র পাওয়া খবর
|
সর্বশেষ
জাতিসংঘের কাছে ৯২০মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা চায় বাংলাদেশ         দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে         রাতভর বোমাতঙ্ক সকালে মিললো বেগুন আতঙ্কে ক্যাম্পাস         আজ ইজতেমার মাঠে সর্বকালের স্বরনীয় জুম্মার জামাতে লক্ষ লক্ষ মুসল্লী ।।         ভাষা আন্দোলনেও বঙ্গবন্ধুর অবদানকে মুছে ফেলা হয়েছিল         দুইমাসের মধ্যে পাঁচ হাজার ডাক্তার নিয়োগ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী         জামায়াত থেকে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ         ঠাকুরগাঁও বিজিবি এলাকাবাসী সাথে সংঘর্ষে নিহত ৪জন         The Insider Secrets for Hello World         বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভিন্ন পদ্ধতিতে শিক্ষক ও কর্মচারী নিয়োগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।         দুর্নীতিবাজ দুদকের দুর্নীতিবাজ আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল         দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো থাকলে বিনা খরচে হজ্বে সুযোগ দিতাম।।ইমরান খান। ।         রাজধানী সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আগুন         বিশ্বনাথে নুনু মিয়ার সমর্থনে অলংকারী ইউনিয়ন আ’লীগের যৌথ কর্মীসভা         তিন বাংলাদেশি বিপিএল তারকার বোলিং অবৈধ। ।বিসিবি।।।।        

মোবাইলে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে বাসায় আনাই ছিল তাদের পেশা!

প্রকাশিত হয়েছে : ১১:২১:৩৯,অপরাহ্ন ৩১ মার্চ ২০১৮ | সংবাদটি ৩০০ বার পঠিত

হলিবিডি ডেস্ক : মোবাইল ফোনে ব্যবসায়ীদের অনৈতিক প্রস্তাব দিত স্বামী পরিত্যক্ত মেয়েটি। প্রলোভনে পড়ে কেউ ফাঁদে পা দিলেই তাকে বাসায় আটকে রাখা হতো। এর পর আদায় করা হয় মোটা অংকের অর্থ।

রাজশাহীর পুঠিয়া থেকে এমন এক প্রতারকচক্রের চার সদস্যকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন স্থানীয়রা।
শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার বানেশ্বরবাজারের চেয়ারম্যানপাড়ার আয়েন উদ্দীনের বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটকরা হলেন- চারঘাট উপজেলার হাবিবপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দীনের স্বামী পরিত্যক্ত মেয়ে মৌটুসি বেগম (২৪), রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার হেতেম খাঁ এলাকার শওকত আলীর ছেলে শিলু পারভেজ (৪০), একই এলাকার আব্দুস সামাদের ছেলে পিয়াস (৩২) ও মিলন আহমদের ছেলে মিনহাজুল (২২)।

পুঠিয়া থানার এসআই ইফতেখার মো. আল আমীন জানান, ওই চক্রটি বানেশ্বরবাজারে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে একটি বাড়িতে বসবাস করতেন। তারা দীর্ঘদিন ধরে বানেশ্বরসহ বিভিন্ন এলাকার ব্যবসায়ীদের মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করত। পরে মেয়েটির মাধ্যমে ওই লোকজনদের সঙ্গে মোবাইলে সম্পর্ক করে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দিত। ওই ফাঁদে পড়ে যারা তাদের বাসায় আসে, তাদের জোরপূর্বক জিম্মি করে মোটা অংকের অর্থ আদায় করত।

এসআই জানান, একইভাবে গত ২৯ মার্চ রাতে প্রতিবেশী ভাড়াটিয়া আলফাজুল ইসলামকে বাসায় ডেকে আনে চক্রটি। পরে তারা আলফাজুলকে জুসের সঙ্গে নেশাজাতীয় ওষুধ মিশিয়ে অচেতন করে তার বাড়ির মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেয়।
ইফতেখার আরও জানান, এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে শুক্রবার রাতে স্থানীয়রা চার প্রতারককে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। শনিবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

About loskor @loskor

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com