বিয়ের দাবিতে অনশন

প্রকাশিত হয়েছে : ৫:০৬:৪৯,অপরাহ্ন ১১ জুন ২০১৯ | সংবাদটি ২৮ বার পঠিত

বহির্বিশ্ব ডেস্ক : ভালবাসা সম্পর্কের স্বীকৃতি আদায়ে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশনের খবর নতুন কিছু নয়। কিন্তু এবার ঘটেছে ঠিক তার উল্টো। প্রেমিকার বাড়ির সামনে অনশনে বসেছেন প্রেমিক। এমনকি জয় করে নিয়েছেন ভালোবাসার মানুষটিকেও।

পশ্চিমবঙ্গে জলপাইগুড়ির ধুপগুড়ি থানায় এ ঘটনা ঘটেছে। প্রেমিকা লিপিকার সঙ্গে দীর্ঘ আট বছরের সম্পর্ক ছিল প্রেমিক অনন্ত বর্মণের। কিন্তু সম্প্রতি লিপিকা অনন্তকে এড়িয়ে চলতে শুরু করেন ।

অনন্তের অভিযোগ, দীর্ঘ আট বছর প্রেম করা সত্ত্বেও একপর্যায়ে লিপিকা তার ফোন রিসিভ করা বন্ধ করে দেয়। এমনকি হোয়াটসঅ্যাপ এবং অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকেও তাকে ব্লক করে দিয়েছে।

তাদের সম্পর্কে চিড় ধরছে এমন টের পেয়ে অনন্ত বিষয়টি অনুসন্ধান করে জানতে পারেন, প্রেমিকাকে অন্য কোথাও বিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছে পরিবার। রোববার সোনাপুর থেকে প্রেমিকাকে পাত্রপক্ষ দেখতে আসবে, এই খবর পেয়ে প্রেমিকার বাড়ির সামনে হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে অনশনে বসে পড়েন অনন্ত। সেখানে লেখা ছিল ‘আমার আট বছর ফিরিয়ে দাও’।

অনন্তের এই অনশনের কথা দ্রুত আশপাশে ছড়িয়ে পরে এবং তাকে সমর্থন জানাতে স্থানীয় লোকজন জমায়েত হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় ধুপগুড়ি থানার পুলিশ। এমনকি যেই ছেলের সঙ্গে লিপিকার বিয়ের কথা চলছিল, সেই পরিবারও ঘটনাস্থলে যায়। কিন্তু প্রেমিক যুবক নাছোড়বান্দা, কোনোভাবেই অনশন ভাঙতে ইচ্ছুক নন।

সোমবার দুপুরে তার শরীর দুর্বল হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে স্যালাইন দেয়া হয়। তবে শেষমেশ বিকেলে এসে সেই স্বপ্নের দেখা পান অনন্ত। অনন্তকে বিয়ে করতে রাজি হন লিপিকা। প্রথমে ঘরের মধ্যেই সবার সামনে সিঁদুর দান, আর এরপর স্থানীয় মন্দিরে গিয়ে একেবার বর-বউ সেজে বিয়ের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম সেরে ফেলেন তারা।

About rezwan rezwan

https://gnogle.ru/project/edit/102
WP Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com