Main Menu

পাহাড়ের কান্না -এম.সোহেল রানা

আচ্ছা…
তুমি বলতে পারো কতটুকু আঘাতে কষ্টের তাপদাহে বুকের পাজর ফাঁটা মরুর বুকে চুরাবালি নিংড়ানো দুঃখ, চোখের কোণে জলের আকার নিয়ে বের হয়ে কপোল বেয়ে গড়ে পড়ে।
জানি তুমিতো বিজ্ঞান নিয়ে পড়েছো এমন তো গবেষণা করেছো নিশ্চয়! আমার বিশ্বাস তুমিই পারবে হইতো বলবে কত ফোটা রক্ত দিয়ে চোখের এক ফোটা জল তৈরি হয়ে থাকে।

অবাক হলে বুঝি এমন প্রশ্নের জন্যে তোমাদের মত মেয়েরাই তো আজ এমন হাজার প্রশ্নের জন্ম দিয়ে যায় তোমরা কখনো দুঃখ কষ্ট পেতে নয় কষ্ট শুধু দিতে জান দিতেই এসেছো।
বলতে পারো এতো বড় পাহাড় কেন থাকে নীরাবতা নিঃসঙ্গ একা একা? শুনেছি পাহাড় ভালবাসতো মেঘকে আর মেঘ ভালবাসতো শুধু পাহাড়।

মরুর বুকে তৃষ্ণার্ত মেঘকে ডেকে- ডেকে পাহাড় নির্বাক নিস্তব্ধ সে একা পাহাড়ের পাদতল বেয়ে ঝরনা প্রবাহ বয়েছে নিরবধি বোঝেনা কষ্ট কেহ সে যে পাহাড়ের বুক ভাসানো কান্না।

রচনাকাল-২/০৬/১৯ইং






Comments are Closed