Main Menu

দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হতে চান জাহাঙ্গীর আলম

ব্যুরো অফিস সুনামগঞ্জ :: সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হতে চান তরুণ সমাজ সেবক ইউনিয়নের অসহায় মানুষের বন্ধু সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম । আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রায় বছর কানেক বাকি থাকলেও সম্ভাব্য ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর ও তাঁর অনুসারিরা।

জাহাঙ্গীর দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের জয়সিদ্বী গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর বাবা হাজী আব্দুল কাইয়ূম অত্র ইউনিয়নের একজন সালিশ ব্যাক্তিত্ব ও আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত প্রাণ ছিলেন । জাহাঙ্গীর ছাত্রজীবন থেকেই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত আছেন। জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে লালন করে, জননেত্রী মুজিব কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে আগামী ইউপি নির্বাচনে তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিত্ব করতে ও চেয়ারম্যান হিসেবে জাহাঙ্গীর প্রতিদ্বিন্দ্বতা করবেন বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র। জাহানঙ্গীর বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। আওয়ামী পরিবারের সন্তান হিসেবে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছে সূত্রগুলো।
জাহাঙ্গীর ইউনিয়নের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পৃষ্টপোষাকতা করে আসছেন।

এতে করে এলাকায় তাঁর একটি স্বকীয় অবস্থান তৈরী হয়েছে। তরুণ প্রজন্মের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে বলে জানান তাঁর অনুসারিরা। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বিন্দ্বতা করলে হেভিওয়েট প্রার্থী হিসেবে চমক দেখাতে পারেন বলে জানান অনেকেই।
ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নিজের প্রার্থিতার বিষয়ে পরিষ্কার করেছেন জাহাঙ্গীর আলম।

জাহাঙ্গীর সম্পর্কে ইউনিয়নের এক সামাজিক সংগঠন পশ্চিম বীরগাঁও ইয়াং সোসাইটির প্রচার সম্পাদক শাহীনূর পাশা জীবন বলেন, এলাকার নবীন- প্রবীনদের মধ্যে জাহাঙ্গীর ভাইয়ের গ্রহণ যোগ্যতা রয়েছে। এলাকার গরীব দুঃখি মানুষের বিপদে জাহাঙ্গীর ভাই এগিয়ে আসেন।

এলাকার বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিভিন্ন কর্মকান্ডে পাওয়া যায় তাকে। ইউনিয়ন নির্বাচনে জাহাঙ্গীর আসলে চমক দেখাতে পারে বলে মনে করেন তারা।
জাহাঙ্গীরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি চাই ইউনিয়নের অসহায় গরীব মানু্ষের সেবা করতে। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি আগামীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বিন্দ্বতা করবো। গতবছর নির্বাচন করে আপনাদের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে অনেক পেয়েছি। এবার আপনাদের কল্যাণেই আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগেরর মনোনয়ন চাইবো।
জাহাঙ্গীর আলম : ১৯৯২ ইং সনে সিলেট এমসি বিশ্ববিদ্যালয় হতে তিনি বি, এস, এস, পাশ করেন।






Related News

Comments are Closed