Main Menu

তাহিরপুরে বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চলছে জমজমাট কোচিং বাণিজ্য

আমির হোসেন, তাহিরপুর প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার স্বনামধন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক থেকে শুরু করে স্কুলের সহকারি শিক্ষক, স্কুলের অফিস সহকারি এই কোচিং বানিজ্যের সাথে জড়িত বলে জানা যায়।
অভিভাবক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় এদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছেন বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মো আফজালুল হক শিপলু, শফিকুল ইসলাম শিকদার, মোঃ মুক্তার হোসেন, অফিস সহকারি কাজী জয়নাল আবেদিন সহ বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিটা শিক্ষক এই কোচিং বানিজ্যের সাথে প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িত।
সকাল থেকে রাত্র পর্যন্ত চলছে জমজমাট কোচিং বানিজ্য৷ এই কোচিং বানিজ্য নিয়ে অভিভাবক মহলে চলছে নানা গুঞ্জন।

কোন অভিভাবক যদি তার সন্তানকে তাদের কোচিং সেন্টারে পড়াতে না চাই তখন সেই ছাত্র/ ছাত্রীর পরীক্ষার রেজাল্ট খারাপ আসে বলে মন্তব্য করেন। সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে সকাল ৭ টা থেকে সকাল ১০ টা আবার সন্ধ্যা ৬ থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত চলছে কোচিং বানিজ্য। প্রতিটা কোচিং সেন্টারে মোট ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা হবে ৬০-১০০ জন । এতে করে শিক্ষকরা স্কুল চলাকালীন সময় ক্লাসে সময় দিচ্ছে খুব কম। পাশাপাশি তাদের কোচিং বানিজ্য চলছে জমজমাট।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক বলেন, জনপ্রতি ছাত্র/ ছাত্রীদের কাছ থেকে ৬০০/৮০০ টাকা হারে অগ্রিম বেতন নিচ্ছেন শিপলু স্যার এবং মুক্তার স্যার। বেতন দিতে না পারলে ছাত্রছাত্রীদের কোচিং থেকে বের করে দিচ্ছেন। এই রকম অভিযোগ ও আসে সহকারী শিক্ষক জনাব আফজালুল হক শিপলুর নামে।

এ বিষয়ে তাহিরপুর মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জনাব মিজানুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি হলি বিডি ২৪ ডটকমকে বলেন, আমাদের কাছে আগে একটি অভিযোগ ছিল ফরম ফিলাপের জন্য অতিরিক্ত অর্থ নেওয়া হয়েছিল এবং আমাদের নির্দেশ অনুযায়ী অতিরিক্ত ৫০ টাকা অভিভাবকদেরকে ফেরত দেওয়া হয়েছে।
তিনি আরও বলেন ক্লাস রুমে কোন ধরনের কোচিং করানো যাবে না। এটা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং স্কুলে বিশেষ ক্লাস করতে হলে অভিভাবক সদস্যদের লিখিত সুপারিশের মাধ্যমে করতে হবে ও ১৫০ টাকার বেশি নেওয়া যাবে না।
আরও বলেন, বাদাঘাট হাই স্কুলের শিক্ষকদের কোচিং এর বিষয়টা আমি জানি না। তবে আমাদের শিক্ষক যদি কেউ এই কোচিং বানিজ্যের সাথে জড়িত থাকেন এ বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখবো।






Related News

Comments are Closed