Main Menu

তাহিরপুরে চার নারী শ্রমিককে মারপিটে লম্পট হান্নান গ্রেফতার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তে এলাকায় সরকারি কাজে বাঁধাদান ও চার নারী শ্রমিককে মারপিটের ঘটনায় সীমান্তের সেই পেশাদার মাদক চোরাচালানী দাঙ্গাবাজ সেই আব্দুল হান্নান ওরফে বড়ছড়া জয়বাংলা বাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে মদপান করে ঘুরে বেড়াই ক্যাডার হান্নান তার ভয়ে কেউ কিছু বলতে পারছে না বলে জানান স্থানীয় জনগণ।

৩১সে জানুয়ারি মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সীমান্তবর্তী বড়ছড়া শুল্ক ষ্টেশন’র বড়ছড়া জয়বাংলা বাজার খন্দকার আবাসিক হোটেলে সামন হতে ট্যাকেরঘাট পুলিশ ফাঁড়ির এ,এস,আই আবু মুছার নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাকে আটক করেন। আটককৃত ক্যাডার হান্নান সে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বুরুঙ্গাছড়া গ্রামের মৃত ইদ্রিস মুন্সীর ছেলে।

মঙ্গলবার রাতে তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) জানায়, নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ কাজে উপজেলার সীমান্ত সড়ক বড়ছড়ার বুরুঙ্গাছড়ায় ভাঙ্গা সড়ক মেরামত কাজে নিয়োজিত থাকা চার নারী শ্রমিককে সীমান্তের দাঙ্গাবাজ মাদক চোরাচালানী মাদকাসক্ত হয়ে আব্দুল হান্নান ও তার কয়েক সহযোগী মিলে গত রবিবার দুপুরে বেধরকভাবে মারপিট করে শ্লীলতাহানী ঘটায়।

বেধরক মারপিটে আহত উপজেলার লাকমা গ্রামের গর্ভবর্তী নারী শ্রমিক কুলসুমা, মালতি রবি দাস, হেলেনা খাতুন,বড়ছড়ার আলেকজান বিবিসহ চার নারী শ্রমিককে ওই দিন বিকেলেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ঘটনার পরদিন সোমবার তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী মো.সাইদুল্লাহ মিয়া সরকারি কাজে বাঁধাদান ও নারী শ্রমিকদের মারপিটে আহত করার ঘটনায় থানায় আব্দুল হান্নান ও তার সহযোগীদের ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেন।

তাহিরপুরের ট্যাকেরঘাট সীমান্তের বড়ছড়াসহ একাধিক গ্রামের লোকজনের অভিযোগ, হান্নান গত এক যুগেরও বেশী সময় ধরে সীমান্তের কিছু যুবক,কিশোর ও নারীকে ব্যবহার করে নির্ব্রিগ্নে ইয়াবা, বিদেশি মদ,কয়লা,চুনাপাথর,ডিজেল চোরাচালান, নারী নির্যাতন, নিরীহ লোকজনের উপর হামলা-মামলা করিয়ে একাধিকবার দাঙ্গা হাঙ্গা সৃষ্টি করে সীমান্ত এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠে। তাহিরপুর থানার ওসি মো. আতিকুর রহমান তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করেন।






Related News

Comments are Closed