Main Menu

ডাক্তার নামধারী সিরিয়াল ধর্ষক আটক

হলিবিডি ডেস্ক : চিকিৎসার নাম করে চেতনানাশক ইনজেকশন পুশ করে ধর্ষণ করতো সে। তুলে রাখতো আপত্তিকর ছবি। সিনেমাকেও হার মানানো এই ধর্ষকের নাম মীর হোসেন। কুমিল্লার লাকসাম পৌর শহরের জংশন এলাকার বাসিন্দা সে। ধর্ষণে তার কৌশল ছিল ভিন্ন। বছরের পর বছর নিজের মালিকানাধীন ডিজিটাল হেলথ কেয়ারের প্যাথলজি ল্যাবে কর্মরত নারীকর্মীদের ধর্ষণ করে আসছিল সে। কখনও প্রলোভনে, কখনও চাকরি হারানোর হুমকি দিয়ে কিংবা কাউকে চেতনানাশক ইনজেকশন পুশ করে ধর্ষণ করতো সে।

র‌্যাব, স্থানীয় সূত্র ও ভুক্তভোগীদের অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভুয়া ডাক্তার মীর হোসেন তার প্যাথলজিতে সুন্দরী মেয়েদের চাকরি দিয়ে নানা কৌশলে তাদের ধর্ষণ করতো। কেউ ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পেত না। মীর হোসেন ডাক্তার না হয়েও নিজেকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দাবি করতো।

এক নারীকর্মীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার তাকে আটক করেছে কুমিল্লার র‌্যাব ১১, সিপিসি-২ এর একটি দল। কথিত ওই ডাক্তার মীর হোসেন লাকসাম পৌরসভার বাইনচাটিয়া গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে। ঠিক কতজন নারীকর্মী এ যাবত ধর্ষণের শিকার হয়েছেন তা এখনও জানা যায়নি। আজ বৃহস্পতিবার লাকসাম থানায় এই প্রতারক ডাক্তারের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার কথা হয়েছে।






Related News

Comments are Closed