Main Menu

গাঁজার আগুনেই পুড়েছে নগরীর ফেরিঘাট মার্কেট

হলিবিডি প্রতিনিধিঃ নগরীর ফেরিঘাট বাসস্ট্যান্ডের পুরাতন কাপড়ের দোকান পুড়ে ছাই হয়েছে গাঁজার আগুন থেকে। আগুন লাগার ঘটনায় মামলার তিন আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। শনিবার দুপুরে ফৌজধারী দ- বিধির ১৬৪ ধারায় দেয়া আসামীদের জবানবন্দি রেকর্ড করেছেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাহীদুল।
আসামিরা হলেন নগরীর টুটপাড়া মেইন রোডের মো. শাহাজাহানের ছেলে মো. জুবায়ের হোসেন (৩০), শেরে বাংলা রোডের চামড়া পট্রির হায়দার আলি ছেলে মো. রাসেল (৩০) ও শেখপাড়া জনতা ব্যাংকের গলির মো. কালা সরদারে ছেলে মো. সোহাগ (২৭)। এর আগে তিন আসামির দু’দিনের রিমা- মঞ্জুর করেছিল মামলার অপর আসামি নগরীর ২৭৩, শেরে বাংলা রোডের মানিক শেখের ছেলে সোহাগ শেখ (২৮) আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খুলনা থানার এস আই মল্লিক মনিরুজ্জামান জানান, ২৬ নভেম্বর রাতে তারা ৪জন গাঁজা সেবন করার সময় সেখান থেকে আগুন লাগে। প্রথমে সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক পরে ৩জনকে গ্রেফতার করা হয়।
মামলার বিবরণে জানা যায়, নগরীর আপর যোশার রোডস্থ ফেরিঘাট পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে পুরাতন কাপড়ের ৩৬ দোকান রয়েছে। ২৫ নভেম্বর রাত ১১টার দিকে ব্যবসায়ীরা তাদের দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যায়। ২৬ নভেম্বর ভোর ৬টার দিকে সময় নাইট গার্ড হায়দার আলি মুঠোফানে তাদের জানায় দোকানে আগুন লেগেছে। তার কাছ থেকে জানা যায় আগুন লাগার সময় সোহাগকে দৌড়ে পালাইতে দেখার কথা। এঘটনায় স্যার ইকবাল রোডের আব্দুর রশিদ শিকদার বাদী হয়ে ৪জনের বিরুদ্ধে খুলনা থানায় মামলা দায়ের করেন যার নং- ২৮।






Related News

Comments are Closed