একজন আলোকিত কৃতিজনঃ কবি গীতিকার ও সুরকার শেখ এম এ ওয়ারিশ- মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহিদ

প্রকাশিত হয়েছে : ১০:২২:৫৫,অপরাহ্ন ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ | সংবাদটি ১৫২ বার পঠিত

হলিবিডি ডেস্ক :: বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতি জগতের এক উজ্জল নক্ষত্র, বাংলা সংগীত ভুবনে কথা ও সুরের নান্দনিক জাদুকর, বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডের কবি গীতিকার ও সুরকার, বাংলাদেশ টেলিভিশন পরিবারের একজন সম্মানিত সদস্য, সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলার কৃতি সন্তান, আমাদের সকলের প্রিয় কবি, গীতিকার ও সুরকার শেখ এম এ ওয়ারিশ বর্তমান বৃহত্তর সিলেটের এক আলোকিত কৃতিজন। বর্তমান সাহিত্য ওসাংস্কৃতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের যে ক’জন গীতিকার ও সুরকার রয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন কবি, গীতিকার ও সুরকার হলেন তিনি। তার কথা ও সুরের সংগীত আজ বাংলাদেশের রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠান সহ যেকোনো অনুষ্ঠানে অহরহ পরিবেশিত হচ্ছে জনপ্রিয়, পদক প্রাপ্ত কণ্ঠশিল্পীর মাধ্যমে। বিটিভি এবং বিটিভি ওয়ার্ল্ড সহ বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে তার কথা ও সুরে গান পরিবেশিত হচ্ছে। তার টাইমলাইন থেকে যেটুকু বুঝতে পেরেছি, তার মতো এমন একজন সম্মানিত, আলোকিত কৃতিজন সম্পর্কে লেখা আমার সাধ্যের বাহিরে। তবুও তার সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত পরিসরে তুলে ধরার চেষ্টা করলাম।

গত ১৬ মার্চ’১৮ বিটিভির রাষ্ট্রিয় প্রোগ্রামে “মার্চের উত্তাল দিনগুলি” অনুষ্টানে তার লেখা দলীয় গণসঙ্গীত” লড়তে পারি মরতে পারি মাতৃভূমির জন্য”। বিটিভির আর্কািইভ থেকে বাচাইকরা গান। রাষ্ট্রীয় সঙ্গীত হিসেবে গণ্য হয়। এছাড়াও বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে এ পর্যন্ত তার ৪৮ টি গান প্রচাচিত হয়। তিনি গত ২৯ মার্চ শওকত ওসমান মিলনায়তন, ঢাকায় জাতীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন গণআজাদী শিল্পীগোষ্ঠী অায়োজনে স্বাধীনবাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠ সৈনিকদের সঙ্গে সংগীত বিচারক, কালজয়ী গীতিকার ও সুরকার হিসেবে “মহান স্বাধীনতা দিবস তর্কবাগীশ ২০১৭” সম্মাননা লাভ করেন। এ ছাড়াও প্রতিভা বিকাশ বাংলাদেশ কর্তৃক বিশিষ্ট গীতিকার পদক, মহাত্মা গান্ধী পিস এওয়ার্ডসহ ঢাকা ও সুনামগঞ্জে প্রায় ২০টির ও অধিক সম্মাননা স্মারক প্রাপ্ত হন। এবং সুনামগঞ্জের সা রে গা মা পা সংগঠনের পক্ষ থেকে “আলোকিত পরিবার সম্মাননা” প্রাপ্ত হন।

তাছাড়াও গত ২২/০২/১৮ ইং বিটিভি এবং বিটিভি ওয়ার্ল্ডের ‘”মেঠোসুর অনুষ্টানে” ” তার কথা ও সুরে প্রচারিত হয় দেশাত্ববোধক দলীয় সঙ্গীতের মাষ্টার ভিডিও। গানটি পরিবেশেনে ছিলো, সারথী শিল্পীগোষ্টী। ইতিমধ্যে তার ৪৯ তম দলীয় দেশাত্ববোক গান রেকর্ডিং সম্পন্ন হয় এবং গত ২৯শে মার্চ তার কথা ও সুরে,৫০ তম গান বাশরী অনুষ্টানের জন্য রেকর্ডিং হয়, গানটি পরিবেশন করেন দেশ বরেণ্য একুশে পদক প্রাপ্ত কণ্ঠশিল্পী।

গত ২৬শে মার্চ ২০১৭ মহান স্বাধীনতা দিবসে বিটিভি’র বিশেষ রাষ্ট্রীয় প্রোগ্রামে “শ্যামল শুভার দেশ” অনুষ্টানে তার কথা ও সুরে মোট ৩টি গান পরিবেশন করা হয়। শুরুতেই দলীয় গণসঙ্গীত, মধ্যে একক ও শেষে দলীয় দেশাত্মবোধক গান। গত রমজানে তার ০৩টি, হামদ, নাথ, ও ইসলামী গান পরিবেশিত হয়, এছাড়াও ঈদের গান, বৈশাখী গান, আধুনিক, লোকগীতি, আধ্যাত্তিক, এমনকি বাউল গান, একুশের গান, মুক্তিযুদ্ধের গান, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান, দেশের উন্নয়নের গান, প্রধান মন্ত্রীকে নিয়ে গান, দেশ বরেণ্য শিল্পীরা পরিবেশন করেছেন।

বিটিভি ছাড়াও, বৈশাখী টিভিতে তার কথা সুরে সৈয়দ আসিকুর রহমান আশিক, মাছ রাঙ্গায় টিভিতে ফকির সাহাব উদ্দিন, ঢাকা শিল্পকলা একাডেমী সহ বিভিন্ন অডিটোরিয়ামে বিভিন্ন শিল্পীর কণ্ঠে অসংখ্য একক দলীয় সঙ্গীত বিশেষ করে গণ সঙ্গীত প্রচারিত হয়ে আসছে। তার এই সকল কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য তাকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। মহান এই ব্যক্তিত্বের জন্য আরো সমৃদ্ধি কামনা করছি এবং তার দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

আগামী ২৭ এপ্রিল ‘১৮ সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলনায়তে অনুষ্ঠিত হবে আমাদের “সুনামগঞ্জ গাঙচিল ৮২ তম কবি সম্মেলন, প্রকাশনা ও অভিষেক অনুষ্ঠান। উক্ত সম্মেলনে তিনি উদ্বোধক হিসেবে থাকবেন। তার মতো একজন সম্মানিত গুণী ব্যক্তি আমাদের সম্মেলনে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করার জন্য তাকে জানাই আন্তরিক ধন্যবাদ ও নিরন্তর শুভেচ্ছা।

লেখক :: মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহিদ, সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়ক, গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদ।

About editor

https://gnogle.ru/project/edit/102
WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com