আলোচিত হত্যা মামলার আসামী নয়ন বন্ড ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

প্রকাশিত হয়েছে : ৮:২৯:৩৬,অপরাহ্ন ০২ জুলাই ২০১৯ | সংবাদটি ৭৭ বার পঠিত

মো.মিজানুর রহমান নাদিম,বরগুনা প্রতিনিধি :
স্ত্রীর সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ঘাতক নয়ন বন্ড (২৫) পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (২ জুলাই) ভোরে বরগুনার পুরাকাটা চায়না প্রজেক্টর সামনে নয়নের সঙ্গে পুলিশের এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার (২ জুলাই) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবীর হোসেন মাহমুদ।
ওসি জানান, রিফাত হত্যাসহ ১১ মামলার আসামি নয়নকে গ্রেফতারে বুড়ির চরে অভিযানে গেলে পুলিশের ওপর গুলি চালান নয়ন বন্ড। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। গুলি বিনিময়ের একপর্যায়ে নয়ন বন্ডের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, শর্টগানের দু’টি গুলির খোসা এবং তিনটি দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়নের বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্রসহ আরও ১০টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে বরগুনা সদর থানায় আটটি মামলার সবক’টিতে জামিনে ছিলেন তিনি। এসব মামলার মধ্যে দু’টি মাদক আইনে, একটি অস্ত্র মামলা ও বাকি পাঁচটি মামলা বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের। দুই মাস আগে রিফাত শরীফের সঙ্গে মিন্নির বিয়ে হয়। পরে মিন্নিকে নিজের স্ত্রী বলে দাবি করেন বরগুনা পৌরসভার ধানসিঁড়ি এলাকার আবুবকর সিদ্দিকের ছেলে সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ড। এ নিয়ে রিফাত ও নয়নের মধ্যে একাধিকবার ঝগড়া হয়। পরে মিন্নির ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বেশ কিছু ছবি দিয়ে অপত্তিকর পোস্ট দেন নয়ন। এনিয়ে রিফাতের সঙ্গে তুমুল ঝগড়া হয় নয়নের। বুধবার (২৬ জুন) দুপুরে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে মিন্নি ও রিফাতকে পেয়ে নয়ন ও তার সহযোগীরা প্রকাশ্যে কুপিয়ে ফেলে রেখে চলে যায়। এরপর স্থানীয়রা রিফাতকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রিফাত

About loskor @loskor

https://gnogle.ru/project/edit/102
WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com