Main Menu

আমাদের জন্য চীন অনেক বড় শ্রমবাজার হবে : প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ : প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, ‘বৈদেশিক কর্মসংস্থান দেশ ও জাতির জন্য অনেক প্রয়োজন। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে প্রবাসীদের রেমিটেন্সের অবদান অনেক। বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য নতুন নতুন শ্রমবাজার খোঁজা হচ্ছে। আগামীতে আমাদের জন্য চীন অনেক বড় শ্রমবাজার হবে।’

জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর আয়োজনে শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে আধুনিকায়নকৃত রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইমরান আহমদ বলেন, ‘দক্ষ হয়ে বিদেশে গেলে দুই-তিন গুণ বেশি বেতন পাওয়া যায়। এজন্য দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার লক্ষ্যে আগামীতে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিদেশ যেতে হবে সব কিছু জেনে, প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে। বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে দালালদের ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।’

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপি ও ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির কাউন্ট্রি ডিরেক্টর হুয়াঙ্গু জিও।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে যে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তা বাস্তবায়নে কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।’ তিনি বলেন, ‘এখানে উন্নততর প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি ও কারিকুলামে প্রশিক্ষণার্থীরা আন্তর্জাতিক মানে প্রশিক্ষিত হবে এবং দেশে ও বিদেশে কর্মসংস্থানে নিয়োজিত হয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রাখবে।’

বিশেষ অতিথি খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ‘রাজশাহী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রকে যুগোপযোগী করার প্রয়োজন ছিল। আমাদের চাহিদায় আধুনিকায়নে কাজটি সঠিক সময়ে হয়েছে। এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে উন্নত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বিদেশে যেতে পারবেন তরুণ-তরুণীরা। প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে বিদেশ গেলে অর্থ ও সম্মান—দুটিই পাওয়া যায়।’

কারিগরি শিক্ষার ওপর জোর দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ভারতসহ আমাদের পাশের দেশগুলো দক্ষ জনশক্তি বিদেশে পাঠিয়ে বিপুল পরিমাণ রেমিটেন্স অর্জন করছে। আমরা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলে ইউরোপ-আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশে পাঠাতে পারবো। এজন্য আমি তরুণ-তরুণীদের কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার অনুরোধ করছি; যাতে তোমরা সমাজ ও দেশে অবদান রাখতে পারো।’






Related News

Comments are Closed